রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ১লা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুরে সাওতাঁল কন্যাকে ধর্ষণ গ্রেফতার-১

মো: মনজুরুল আলম : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে সাঁওতাল আদিবাসী কন্যাকে অপহরন করে পালাক্রমে ধর্ষণ করেছে দুই বখাটে যুবক।

 

ধর্ষিতা পার্বতীপুর উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের বারোকোনা ফুলজান পাড়ার রাম হাসদার কন্যা (১৭)

 

এ ঘটনায় রোববার রাতে পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা করেছে ধর্ষিতার পিতা রাম হাসদা। পুলিশ রোববার রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষক শফিকুল ইসলাম (২০) কে গ্রেফতার করে।

 

সোমবার দুপুর ১২টায় ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং আটক যুবককে দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরন করেছে পুলিশ।

 

ধর্ষিতার পিতা রামহাসদা জানায়, গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে একই ইউনিয়নের কালিকাবাড়ী ডাঙ্গা গ্রামের আজিজুল হকের পুত্র লিজু (২৩) ও নয়াপাড়া গ্রামের ফয়জার রহমানের পুত্র শফিকুল (২০) কাজের লোক খোঁজার অযুহাতে তাদের পল্লীতে প্রবেশে করে তার মেয়েকে অপহরন করে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করে। সময় তার মেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্র নাথ সরেনকে জানানোর পর গতকাল রোববার রাতে থানায় মামলা করা হয়েছে।

 

আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন বলেন, পার্বতীপুরের চিড়াকুটা গ্রামে হামলার রেশ না কাটতেই একই উপজেলার বারোকোনা গ্রামে আদিবাসী কন্যাকে অপহরনের পর ধর্ষন করা কিসের আলামত তা আমি বুঝতে পারছি না। তিনি বলেন, অবিলম্বে ধর্ষনকারীদের গ্রেফতার করতে হবে অন্যথায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করবে আদিবাসীরা।

 

পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মাহমুদুল আলম বলেন, ধর্ষনের অভিযোগে মামলা হয়েছে। অন্য ধর্ষকদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

Spread the love