শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পার্বতীপুর-ঢাকা রেল রুটে পুলিশ প্রহরায় চলছে আন্তঃনগর ট্রেন

সোয়েল সানী : সুম্মা বাড়ী রংপুর শহরের কামার পাড়া মহল্লায়। যাবেন সিরাজগঞ্জ মেডিকেল কলেজে। শনিবার থেকে তার ক্লাস শুরু। অবরোধের কারনে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় পার্বতীপুর স্টেশনে এসেছেন দ্রুতযান ট্রেন ধরতে। জহুরা খাতুন এসেছেন বদরগঞ্জ থেকে। ঢাকায় একটি বেসরকারী কোম্পানীতে চাকুরী তার। যে ভাবেই হউক তাকে ঢাকা পৌছাতে হবে। শুধু সুম্মা আর জহুরা নয় উত্তরাঞ্চলের শতশত যাত্রী এখন ট্রেনমুখী। যাত্রীর চাপে হিমশিম খাচ্ছে রেল কর্তৃপক্ষ।

 

যাত্রার শুরুতেই গতকাল শুক্রবার বিকেল পৌনে ৪টায় ৬ ঘন্টা বিলম্বে উপচেপড়া যাত্রী নিয়ে পার্বতীপুর ছেড়ে গেছে আন্তঃ নগর দ্রুতযান ট্রেনটি। একই অবস্থা আন্তঃনগর একতা, নীলসাগর, লালমনি এক্সপ্রেস ও রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেন গুলোর। আন্তঃনগর ট্রেন গুলো ছাড়াও লোকাল ট্রেন গুলোতেও রয়েছে উপচেপড়া যাত্রীর ভীড়। পার্বতীপুর টিকেট কাউন্টারে ৫দিন পূর্বের টিকেটও শেষ হয়ে গেছে। যাত্রীর চাহিদা অনুযায়ী অতিরিক্ত আসন বিহীন টিকেট বিক্রি করা হচ্ছে। অপর দিকে রেলপথে নাশকতা এড়াতে রেলওয়ে পুলিশ নিরপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে।

 

 

এব্যাপারে পার্বতীপুর স্টেশন মাষ্টার জিয়াদুল ইসলাম বলেন, উত্তোরাঞ্চল থেকে ঢাকাগামী প্রতিটি ট্রেনে যাত্রী সংখ্যা আশংকা জনক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। যাত্রীদের ওঠানামার কারনে ট্রেন চলাচলে বিলম্ব হচ্ছে। আসন সংকোট দেখা দেওয়ায় অতিরিক্ত আসন বিহীন টিকেট দেওয়া হচ্ছে।

 

এদিকে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম লুৎফর রহমান বলেন, দুবৃত্তরা ট্রেনের ফিসপ্লেট খুলে ফেলায় বেশ কিছু যাত্রী আহত হন। এ কারনে যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে যাত্রীরা যাতে নির্বিগ্নে গন্তব্যে পৌছাতে পারে তার জন্য নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে।

Spread the love