শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

প্রত্যেককে করের আওতায় আনা উচিত: অর্থমন্ত্রী

যাদের আয় নেই তাদের ছাড়া দেশের প্রত্যেক নাগরিককে করের আওতায় আনা উচিত বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। পে-রোল ট্যাক্স ও করজাল সম্প্রসারণ বিষয়ে আজ বুধবার এক সেমিনারে এই প্রস্তাব নিয়ে কথা বলেন তিনি। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের উপস্থিতিতে সেমিনারে অর্থমন্ত্রী বলেন, “যাদের কোনো আয় নেই তারা ছাড়া দেশের প্রত্যেক নাগরিককে বাধ্যতামূলকভাবে ন‌্যূনতম করের আওতায় আনা উচিত। এর পরিমাণ ১০/২০/৩০ বা ৫০ টাকা হতে পারে। পরিমাণ যাই হোক না কেন।
কয়েকবছর আগেও একবার এ প্রস্তাব দিয়েছিলেন জানিয়ে মুহিত বলেন, এখন আবারও দিচ্ছি। যদিও বাস্তবায়ন হবে কিনা জানি না। তবে আশা ছাড়িনি। সরকারের এখনো দুই বছর আছে। তিনি আরও বলেন, ষোল কোটি মানুষের বাংলাদেশে মাত্র ১২ লাখ মানুষ আয়কর দেয় জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, “উন্নত দেশে মোট আয়করের ৩০ শতাংশ আসে বেতন-ভাতা থেকে। অথচ বাংলাদেশে এটা মাত্র ৪ শতাংশ।
এ অবস্থার পরিবর্তনের ওপর জোর দিয়ে মুহিত বলেন, সরকারি কর্মচারীদের কাছ থেকে এখন সরকার কর কেটে রাখছে। বেসরকারি খাতও সচেতন হয়ে বেতন থেকে কর কেটে রাখলে অবস্থার উন্নতি হবে। দেশে কর কালচার তৈরি করার জন্যই এটা দরকার। এ বিষয়ে ‘সুশীল সমাজসহ’ সংশ্লিষ্টদের মতামত গঠনের আহ্বান জানান তিনি।
রাজধানীর অফিসার্স ক্লাব সম্মেলন কক্ষে এনবিআর আয়োজিত এ সেমিনারে অর্থমন্ত্রী ছিলেন প্রধান অতিথি। এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশের কম্পটোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল মাসুদ আহমেদ। আর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বৃহৎ করদাতা ইউনিটের কমিশনার মো. আলমগীর হোসেন। এ ছাড়া পে-রোল ট্যাক্সের ওপর আলোচনা করেন পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর।

Spread the love