রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফুটপাতে কাদের সিদ্দিকীর ২৮ দিন

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আলোচনায় বসার এবং বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি অবরোধ-হরতাল প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম।

মতিঝিলে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের ফুটপাতে গত ২৮ জানুয়ারি থেকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তিনি।

সোমবার অবস্থান কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করতে আসা ব্যক্তিদের উদ্যেশ্যে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘বিডিআর হত্যাযজ্ঞের খলনায়কদের সরকারী গাড়িতে করে এনে প্রধানমন্ত্রী আলোচনা করতে পারেন, সন্তু লারমার সাথে আলোচনা করতে পারেন, অথচ দেশ যখন জ্বলছে, মানুষ ও মানবতা যখন পুড়ছে তখন কেন আলোচনা করতে পারবেন না?’

দেশের মানুষের প্রাণ ওষ্ঠাগত, ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষাজীবন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে, তারপরও বেগম খালেদা জিয়া হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহার করবেন না এটা হতে পারে না।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘যে দেশে দিনে-দুপুরে কাউকে হত্যা করলেও হাজার মানুষ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে, সেই দেশে বোমাবাজদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ আশা করা বাতুলতা ছাড়া আর কিছুই নয়। মানুষের জানমাল হেফাজতের দায়িত্ব যাদের সেই পুলিশের কাছেও এখন প্রাণ বাঁচাতে মানুষ আশ্রয় পায় না।’

কাদের সিদ্দিকীর সঙ্গে অবস্থান করেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী, কেন্দ্রীয় নেতা ফরিদ আহমেদ, আবুল হোসেন, যুব আন্দোলনের আহবায়ক হাবিবুন নবী সোহেল, আলী হোসেন মন্ডল, আতিকুর রহমান সাদেক, ছাত্র আন্দোলনের আহবায়ক রিফাতুল ইসলাম দীপ, সাইফুল ইসলাম শিমুল, শাহীনুর আলম, সবুজ, সম্রাটসহ শতাধিক নেতা-কর্মী।

Spread the love