শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফুলবাড়ীতে স্থানীয়ভাবে তৈরী হারবেষ্টার মেশিন দিয়ে চলছে ধান কাটা ও মাড়া

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাপুরের ফুলবাড়ীতে কৃষক আনোয়ারের নিজস্ব তৈরী হারবেষ্টার মেশিন দিয়ে চলছে একই সংঙ্গে ধান কাটা ও মাড়া। কৃষকেরা জানিয়েছেন তারা হারবেষ্টার মেশিন দিয়ে ধান কাটা মাড়া করে শ্রমিক সংক্কট থেকে রক্ষা পাওয়া পাশাপাশি অনেক কম খরচে কম সময়ে ধান কাটা মাড়া করতে পারছে।

গতকাল শুক্রবার ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নে বাসুদেবপুর গ্রামে গিয়ে দেখা যায় মাঠে হারবেষ্টার মেশিন দিয়ে একই সংঙ্গে ধান কাটা মাড়া ও বস্তা বন্দি করছেন । অল্পসময়ের মধ্যেই একরের পর একর ধান কাটা মাড়া ও বস্তা  হচ্ছে এই মেশিন দিয়ে। কৃষক স্বপন কুমার জানায়, আগে এক একর জমি ধানা কাটা মাড়া করতে খরচ হত ৬ থেকে ৭ হাজার টাকা। বর্তমানে হারবেষ্টার মেশিন দিয়ে ধান কাটা মাড়া করতে খচর হচ্ছে ২থেকে ৩ হাজার টাকা । একই কথা বলেন, বাসুদেবপুর গ্রামের সুলতান হোসেন।

কৃষক আনোয়ার জানায় যে ভাবে আমাদের কৃষি কাজে শ্রমিক সংঙ্কট দেখা দিয়েছে। তাতেকরে আগামী ১০বছর পর মাঠের শ্রমিকের অভাবে কৃষি কাজ করা অসম্ভব হয়ে পরবে। তখন হারবেষ্টার মেশিনেই এক মাত্র কৃষকের ভরসা হবে। তিনি স্থানীয় ভাবে সুমন ওর্য়াকসপে এই হারবেষ্টার মেশিন তৈরি করেছেন। এখানে ইঞ্জিন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে চীনে তৈরী সেলমেশিন বাকী সবই তার নিজেস্ব প্রযুক্তি। তার এই মেশিন একই সংঙ্গে ধান কাটা মাড়া ও বস্তা বন্দি করতে পারে এবং বহনও করতে পারে। তার এই মেশিন ইতিমধ্যে দেশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সহ বিদেশ থেকেও প্রতিনিধিদল পরিদর্শন করে প্রশংসা করেছে। সে সরকাররে সহযোগীতা পেলে এই হারবেষ্টার মেশিন সারা বাংলাদেশে কৃশকের হাতে তুলে দিতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।