শনিবার ২১ মে ২০২২ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফুলবাড়ী জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মডেলে উন্নত করণের আদেশ বাতিলের প্রতিবাদে ছাত্র-ছাত্রীদের মানববন্ধন

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার ফুলবাড়ী জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে মডেল থেকে বাতিল করার প্রতিবাদে গতকাল সোমবার দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কের ঢাকা মোড় নামক স্থানে  বেলা ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত ১ ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন করেছেন জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীরা।

জানা গেছে, উপজেলার ঐতিহ্যবাহি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে মডেল হিসেবে ঘোষণা দিয়ে ২০০৯ সালের ২৯ এপ্রিল ভিত্তি প্রস্তর ও ফলক উন্মোচন করেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি। এর কিছু দিন পর গত ২২ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মডেল উন্নত করণের সিদ্ধান্ত বাতিল করে উপজেলার সুজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়কে মডেল হিসাবে ঘোষণা দিয়ে ফলক উন্মোচন করেন একই ব্যক্তি ভূমি প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি। তারই প্রতিবাদে গতকাল মানববন্ধন করেন জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীরা। উল্লেখ্য যে, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরিকল্পনা শাখা-৩, থেকে শিমপ/সিঃসঃপঃ-৩/উপজেলা মডেল বিদ্যালয়/১৮২/২০০৮ (অংশ-১)/১১, তারিখ-০৫/০১/২০০৮ এর স্মারক নম্বরে প্রজ্ঞাপনে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় বিহিন ৬৩টি উপজেলায় একটি করে মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তার মধ্যে ফুলবাড়ী জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে। সিনিয়র সহকারী প্রধান-৩ থেকে একটি পত্র প্রেরণ করেন।

প্রাক্তন ছাত্র সাবেক পৌর কাউন্সিলর এস.এম নুরুজ্জামান বলেন, ভূমি প্রতিমন্ত্রী এই এলাকার বাসিন্দা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য। তিনি সুজাপুর উচ্চ বিদ্যালয়কে মডেল কিংবা সরকারি করুক তাতে কারও কোন আপত্তি নেই বরং সহযোগিতা রয়েছে। কিন্তু জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে মডেল হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার পরেও সেই ঘোষণাকে বাতিল করে একই ব্যক্তি অন্য একটি বিদ্যালয়কে মডেল হিসেবে ঘোষণা দেওয়া নিশ্চয়ই অমানবিক এবং তার এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একই কথা বলেন, জিএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন অন্যান্য ছাত্ররাও।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email