মঙ্গলবার ১৬ অগাস্ট ২০২২ ১লা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বর্তমানে বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে

আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বর্তমানে বাংলাদেশ নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে। তাই আমাদের চোখ-কান সবসময় খোলা রেখে চলতে হবে। কোন ষড়যন্ত্রকারীকে ছাড় দেয়া হবে না, সে যেই হোক না কেন। তিনি বলেন, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমান তার রক্তের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ উপহার দিয়েছে কিন্তু দেশটিকে সাঁজাতে পারেনি। বিগত ১২ বছরে এই বাংলাদেশকে ফুলে-ফলে সবকিছুতেই পরিপূর্ণভাবে সাঁজিয়েছে আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছে শেখ হাসিনা।
আজ রবিবার বিকেল ৪টায় টাঙ্গাইল আউটার স্টেডিয়ামে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলমগীর খান মেনুর সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এমপি, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ডঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপি , টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান খান ফারুক, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, পাট ও বস্ত্রী প্রতিমন্ত্রী মীর্জা আজম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য অ্যাডভোকেট মমতাজ উদ্দিন মেহেদী প্রমুখ। সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন।
মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে একটি চক্র ষড়যন্ত্র করে বিদেশীদের হত্যা করছে। যাতে করে বাংলাদেশের সুনাম নষ্ট হয়। কারন বাংলাদেশের সুনাম নষ্ট হলে এদেশে কোন বিদেশী আসবে না সেই সাথে গার্মেন্টস ব্যবসায় ধ্বস নামবে বলেও মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কোন সন্ত্রাসীর রাজনিতী করে না। তাই দলে কোন সন্ত্রাসীর ঠাঁই নেই। তিনি টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যার বিষয়ে বলেন, তিনি যদি পুলিশের গুলিতে মারা যেত তাহলে সেটা অন্য কথা ছিল। কিন্তু যেহেতু আমাদের এই নেতা দলের নেতাকর্মীদের হাতেই নির্মমভাবে নিহত খুন হয়েছেন এটা কোন ভাবেই মেনে নেয়া যায় না। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের এমন আত্মঘাতি মনোভাব থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেন তিনি।
মন্ত্রী জঙ্গীবাদের বিষয়ে বলেন, বিএনপি-জামায়াত এই দেশে জঙ্গীদের লালন পালন করছে। তারাই জঙ্গীদের দিয়ে নির্মমভাবে একের পর এক মানুষ হত্যা করছে, বোমা মারছে। বিএনপি-জামায়াত এমন একটা দল, তারা শবেবরাতের রাতে যাত্রীবাহি বাসে পেট্রোল বোমা মারতে পারে তাদের মধ্যে কোন মনুষত্যবোধ নেই। তিনি বলেন, যারা যুদ্ধেই যায়নি তারা আবার দেশকে ভালোবাসবে কি করে। তারাতো মানুষ মারবেই এটাই তাদের ধর্ম। আমরা কোন ভাবেই জঙ্গীবাদের পক্ষে ছিলাম না বর্তমানেও নেই। আমরা এই বাংলাদেশ থেকে চিরতরে এই জঙ্গীবাদ নির্মূল করবই।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email