শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বালিয়াডাঙ্গীতে গলা কাটা লাশ উদ্ধার

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় মহিষমারী ছাগলডাঙ্গী গম ক্ষেতে গলা কাটা লাশ পাওয়া গেছে। পুলিশ লাশের গলা সারাদিনভর খুঁজলেও গলার কোনো সন্ধ্যান পায়নি।
জানা যায়, ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মহিষমারী ছাগলডাঙ্গী গ্রামের মৃত রহিম উদ্দীনের পূত্র পজির উদ্দীন (৪০)  বুধবার রাতে পাশ্ববর্তি চন্দন চহট ঈদগাহ মাঠে ওয়াজ মাহফিল শুনতে যায়। মাহফিল শেষে বাড়ি ফেরার পথে ছাগলডাঙ্গী রফিকুল ইসলামের হাসকিং মিলের পাশ্বে গম ক্ষেতে বৃহস্পতিবার ভোর ৬ টায় পজির উদ্দীনের গলা কাটা লাশ এলাকাবাসি দেখতে পায়। পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ বালিয়াডাঙ্গী থানায় নিয়ে আসে। ঘটনাস্থলে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ, বালিয়াডাঙ্গী থানার অফিসার ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুছ ঘটনাস্থল তদারকি করেন। দিনভর গম ক্ষেতে গলা খুজার জন্য অভিযান চালায় পুলিশ। পজির উদ্দীনের পরিবার পক্ষথেকে অভিযোগ করা হয়েছে যে, ২ শতক বসতভিটা জমি নিয়ে একই গ্রামের মমতাজের সঙ্গে দির্ঘ্য দিনের বিরোধ চলছে। মমতাজ বাদি হয়ে পজিরের নামে ৩টি মামলা দায়ের করে। পজির উদ্দীনের বাড়িতে স্থানীয় সাংবাদিকরা গেলে তার স্ত্রী এক ছেলে ও দুই মেয়ের আহজারিতে আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠে। তার স্ত্রী অবিলম্বে স্বামী হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের আওতায় এনে ফাঁসির দাবি জানান।
ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ জানান, হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে। যে কোন মূল্যে অপরাধীদের আইনের কাছে সপর্দ করা হবে। বালিয়াডাঙ্গী অফিসার ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুছ জানান, অপরাধীদের ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। লাশের গলা উদ্ধার করতে পুলিশ জোর চেষ্টা চালাচ্ছে।