শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা

মো. আব্দুর রাজ্জাক : দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলায় ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ বীরগঞ্জ এরিয়া প্রোগ্রামের আয়োজনে বীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদে “বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিশু সুরক্ষা” বিষয়ে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের সাথে একটি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভাটি সভাপতিত্বে করেন মানুয়েল হাসদা, এপি ম্যানেজার, বীরগঞ্জ এপি, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ। সভায় অংশগ্রহণ করেন সুজালপুর,পাল্টাপুর,নিজপাড়া ও মোহনপুর ইউনিয়নের ২০ জন ধর্মীয় নেতা।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আব্দুল কাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার,বীরগঞ্জ। উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আব্দুল আজিজ, ফিল্ড সুপারভাইজার,ইসলামিক ফাউন্ডেশন, বীরগঞ্জ। আরো উপস্থিত ছিলেন প্রোগ্রাম অফিসার ভিক্টরিয়া বিশ্বাস, দীপা রোজারিও, সতীশ চন্দ্র ও জুনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার অনিন্দিতা কুন্ডু।

এ আলোচনায় বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত ধর্মীয় নেতারা শিশু সুরক্ষা প্রসঙ্গে বলেন অতীতের তুলনায় কমে গেলেও বাল্যবিবাহ দূর হয়নি। তারা যথাসাধ্য চেষ্টা করেন বাল্যবিবাহ রাখতে। কিন্তু অসচেতন মানুষ অনেক সময় নকল জন্ম নিবন্ধন সনদ ও অন্যান্য অসুদপায় অবলম্বন করে থাকে। কখনও তারা এলাকার বাইরে নিয়ে গিয়েও গোপনে এসব বাল্য বিয়ে দেয়া হয়।তারা আরও বলেন যে, কোভিড-১৯ এর মহামারী কারণে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকায় এলাকায় বাল্যবিবাহ যথেষ্ঠ বেড়েছে। সভায় উপস্থিত বক্তারা বলেন যে, সামাজিক সচেতনতার সাথে সাথে সরকারী আইনি নির্দেশনা ও প্রয়োগ জোরদার হলে শিশু সুরক্ষা ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা সম্ভব। এর জন্য প্রয়োজন সম্বন্বিত উদ্দ্যেগ ও সামাজিক আন্দোলন।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিনিধি জনাব মোঃ আব্দুল আজিজ শিশু সুরক্ষায় ওয়ার্লড ভিশনের কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন তার প্রতিষ্ঠানও শিশু সুরক্ষা, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, নির্যাতনসহ বিভিন্ন বিষয়টি মাথায় রেখে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব মোঃ আব্দুল কাদের, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বীরগঞ্জ, দিনাজপুর বলেন যে, শিশু সুরক্ষা নিশ্চিত করতে ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে প্রশাসনিক পদক্ষেপের বিষয় আরো জোরদার করার বিষয়টি তিনি দেখবেন। তবে কমিউনিটি লেভেলে শিশু ও নারী উন্নয়ন বিষয়ক সচেতনতা মূলক কার্যক্রম চলমান থাকাও প্রয়োজন। পাশাপাশি সকল শিশু যেন সকুলে যায় তা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি ওয়ার্ল্ড ভিশনের এই কার্যক্রমকে সমর্থন জানান এবং ভবিষত্যেও পাশে থাকবার আশ্বাস দেন।

সমাপনী বক্তব্যে সভার সভাপতি মানুয়েল হাসদা বলেন যে, ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ শিশু সুরক্ষা ও বাল্য বিবাহ বন্ধ সহ বিভিন্ন ধরনের সামাজিক কার্যক্রমে ব্যপক ভ’মিকা পালন করে চলেছেন। তারা আগামীতেও চলমান রাখবেন বলে আশা করা যায়। তিনি উপস্থিত সকলের উদ্দ্যেশে “নিরাপদে স্কুলে ফিরি” ক্যাম্পেইন কার্যক্রম বিষয়ে সহভাগিতার মাধ্যমে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email