মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপির আন্দোলনে ঈদ কখনো আসবে না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Nasimআওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নির্বাচনে না গিয়ে তিনি বিরোধী দলীয় নেতার পদটিও হারিয়েছে। দেশবাসী আর তার কথায় বিশ্বাস করেন না। ঈদের পর তারা সরকার পতনের আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছেন। তাদের এ আন্দোলনের ঈদ এ দেশে কখনো আসবে না। বিএনপি নিয়মতান্ত্রিক রাজনীতির পথ পরিহার করে জ্বালাও, পোড়াও, নরহত্যাসহ নৈরাজ্য সৃষ্টির পথ বেছে নিয়ে এখন জনবিচ্ছিন্ন একটি সন্ত্রাসী দলে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারীর নির্বাচন না হলে অসাংবিধানিক শক্তি ক্ষমতা দখল করতো। এতে অনেক ত্যাগ ও রক্তের বিনিময়ে কষ্টার্জিত গণতন্ত্র ধংস হয়ে যেত। নির্বাচনে অংশ না নিয়ে বেগম খালেদা জিয়া যে ভুল করেছেন তা তিনি শোধরাননি। আজ শনিবার দুপুরে মন্ত্রী তার নির্বাচনী এলাকা কাজীপুর উপজেলার মাইজবাড়ি ইউনিয়নের কুনকুনিয়া ও শ্যামপুর গ্রামের ৪৫৬টি পরিবারের বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন শেষে মাইজবাড়ি হাই স্কুল মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।
বেগম খালেদা জিয়াকে মাথা ঠান্ডা রেখে বর্তমান সরকারকে সহযোগিতার পাশাপাশি আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেবার আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, জনগণ ভোট দিলেই বিএনপি আগামীতে সরকার গঠন করতে পারবে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জহুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক সরকার বকুল, জেলা সিভিল সার্জন ডা. শামসুদ্দিন আহমেদ, সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম প্রকৌশলী তুষার কান্তি দেবনাথ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে তিনি সিরাজগঞ্জ কালেক্টরেট ভবনের শহীদ শামসুদ্দিন সম্মেলন কক্ষে জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির বৈঠকে অংশগ্রহন করেন।
এ সমন্বয় সভায় মন্ত্রী বলেন, প্রথমে মায়ানমার ও পরে ভারতের সাথে আইনী লড়াইতে বাংলাদেশের বিজয় হয়েছে। শুধুমাত্র প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া তালপট্রির নাম করে এই অর্জন নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। তারা দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকাকালে এ ব্যাপারে কোন ব্যবস্থাই গ্রহন করেননি। তারা শুধু গলাবাজি করতেই পারদর্শী। কিন্তু বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিয়ে আন্তর্জাতিক আদালতে আইনের মাধ্যমে সমুদ্রের বিশাল অংশে বাংলাদেশের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেতে সক্ষম হয়েছে। হীণমন্যতার কারনে বেগম জিয়া এ সব আবোল তাবোল বলছেন। তিনি বিএনপিকে হঠকারিতা ত্যাগ করে গনতান্ত্রিক ধারায় ফিরে এসে জনকল্যানে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান।