শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিরলে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীসহ ৩ জনকে জরিমানা

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বিরল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী প্রচারনায় আচরনবিধি লংঘন করার অভিযোগ এনে ৩ জন প্রার্থীকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে স্থানীয় ভ্রাম্যমান আদালত। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও বিরল উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) তোফাজ্জল হোসেন তার নিজস্ব কার্যালয়ে ৩ প্রার্থীর বিরুদ্ধে এই জরিমানা করেন।
অভিযুক্ত ৩ প্রার্থী হচ্ছেন- চেয়ারম্যান পদে বিএনপির প্রার্থী আনম বজলুর রশিদ (মোটরসাইকেল), জাতীয় পার্টির প্রার্থী আনোয়ার হোসেন চৌধুরী জীবন (কাপপ্রিচ) ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহনাজ পারভীন (প্রজাপতি)।
বিরল উপজেলার সহকারী কমিশনার-ভূমি (এসি-ল্যান্ড) তোফাজ্জল হোসেন জানান, নির্বাচনী আচরনবিধির ২৫ বিধিমালা লংঘন করায় ওই ৩ প্রার্থীকে জরিমানা করা হয়।
তিনি জানান, নির্বাচনী আচরণ বিধির ২৫ বিধিমালায় রাত ৮টার পর মাইকিং-এ প্রচারণা নিষিদ্ধ থাকলেও রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিরল বাজারে মোটরসাইকেল প্রতীকের পক্ষে উপজেলার পুরিয়া গ্রামের মেহেরুল ইসলামের ছেলে সুরত আলী, কাপপ্রিচ প্রতীকের পক্ষে একই উপজেলার দামাইল গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে মো. লাবু এবং প্রজাপতি মার্কার পক্ষে প্রার্থী শাহনাজ পারভীনের স্বামী জুলফিকার আলী মাইকিং-এ প্রচারণা চালাচ্ছিল। এসময় বিরল বাজার থেকে তাদের আটক করে রাত সাড়ে ৯টায় ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ওই ৩ প্রার্থীকে জরিমানা করা হয়। রাতেই সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রতিনিধিরা জরিমানা পরিশোধ করেন বলে জানাযায়।
উল্লেখ্য, চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পঞ্চম দফায় আগামী ৩১ মার্চ বিরল উপজেলার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়ের ছেলে মানবেন্দ্র রায় প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।