রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিরলে হিন্দু পল্লীতে খড়ের স্তুপে আগুন। ১১৭ টি পরিবারের মাঝে আতংক

আতিউর রহমান, বিরল (দিনাজপুর): বিরলে সনাতন ধর্মাবলম্বী (হিন্দু) পলস্নীর খড়ের স্ত্তপে গভীর রাতে আগুন দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা। ঘটনার পর থেকে ওই পলস্নীর ১শ’ ১৭ টি পরিবারের মাঝে চরম ভীতির সৃষ্টি হওয়ায় পরিবারগুলো আতংকে রয়েছে।

জানা গেছে, গত বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ২ টার দিকে উপজেলার শ্রী কৃষ্ণপুর কুমার পাড়া গ্রামে দূবৃর্ত্তরা প্রবেশ করে মৃতঃ যগেশ্বর চন্দ্র পালের পুত্র নগেন্দ্র নাথ পাল (৫৫), মৃতঃ পশুরাম পালের পুত্র রতন চন্দ্র পাল (৪২), মৃতঃ জগোবন্ধু পালের পুত্র অশোক চন্দ্র পাল (৪৫) ও জীপেন চন্দ্র পাল (৫০)-এর খড়ের স্ত্তপে একই সাথে আগুন দেয়। আগুনের লেলিহান শিখায় বৈদ্যুতিক তার পুড়ে গেলে গোটা পাড়ায় আতংক ছড়িয়ে পড়লে লোকজন দিক-বিদিক ছুটো ছুটি করতে থাকে। সাথে সাথে পলস্নী বিদ্যুৎ অফিসে খবর দেয়া হলে ওই গ্রামের বিদ্যুতের সংযোগ বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে দিনাজপুর হতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

ঘটনার পর বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে পুলিশের সদর সার্কেল এএসপি সুশামত্ম রায় ও বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার বিষয়ে অজ্ঞাত নামা আসামী করে মামলা হয়েছে বলে জানান। তবে মামলা নম্বর কত ? জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, মামলার আইও এসআই আব্দুল মতিনের সাথে যোগাযোগ করম্নন। এসআই আব্দুল মতিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, মামলা এজাহার ভুক্ত হয়েছে কি-না আমার জানা নেই। আমি কোন এজাহারের কপি পাইনি। তবে ৭নং বিজোড়া ইউপির আনন্দ নামের এক চৌকিদার বাদী হয়ে মামলাটি করার কথা বলে আমি জানি। এদিকে ঘটনার পর হতে ওই এলাকায় আতংক বিরাজ করলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাড়তি কোন নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

Spread the love