শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জের বিজয় মেলায় জুয়া ও নগ্ন নৃত্যে বন্ধে প্রশাসনের অভিযান

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বীরগঞ্জে মঙ্গলবার রাতে ভোগডোমা বেলতলী এলাকার আমিনুল ইসলাম (৫০) নামে এক কৃষক শেষ সম্বল ক্ষেতের ধান বিক্রি করে টাকা দিয়ে উপজেলার কুড়িটাকিয়া হাটে বিজয় মেলায় জুয়া খেলে হাউজি খেলতে গিয়ে সর্বসামত্ম হয়।

 

টাকার শোকে আমিনুল হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে মেলাতেই লুটিয়ে পড়েন। এ সময় মেলা কর্তৃপক্ষ তাকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানেই তিনি মারা যান।

 

ঘটনাটি বৃহস্পতিবার বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হলে রাত ৯টায় মেলায় জুয়া ও নগ্ননৃত্য বন্ধে প্রশাসন অভিযান চালায় ।

 

বীরগঞ্জ উপজেলা দুনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবু সামা মিয়া জানান, বিজয় মেলার নামে জুয়া ও নগ্ন নৃত্যে এর ডিশ লাইনের মাধ্যমে তা প্রচারের প্রতিবাদ করতে আমরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেল মনজুর এবং ওসি কেএম শওকত হোসেনে কাছে মৌখিত ভাবে আবেদন জানাই। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে বাড়াবাড়ি করলে গ্রেফতার করে ভ্রাম্যমান আদালতে ২বছরের জেল দেওয়া হবে বলে হুমকি প্রদান করা হয়। পরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি ও পাবলিক লাইব্রেরীর পক্ষ থেকে পৃথক পৃথক লিখিত স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। কিন্তু অদৃশ্য শক্তির বলে বিজয় মেলার নামে জুয়া ও নগ্ন নৃত্যে বন্ধ হয়নি।

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাসেল মনজুর বিষটির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি ও পাবলিক লাইব্রেরীর দাবির প্রেক্ষিতে মেলায় জুয়া ও নগ্ননৃত্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে আগামী ৩০জানুয়ারী পর্যন্ত জেলা প্রশাসক মহোদয়ের অনুমতি থাকার কারণে মেলা বন্ধ করা সম্ভব হয়নি। জুয়া খেলে হাউজি খেলতে গিয়ে সর্বসান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যুর বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করে জানান, নিহতের পরিবারের সাথে আমরা কথা বলেছি। তবে তিনি একজন পেশাদার জুয়াড়ী বলে জানতে পেরেছি।

 

বীরগঞ্জ থানার ওসি কেএম শওকত হোসেন

মেলায় জুয়া ও নগ্ননৃত্য বন্ধ করার সত্যতা

নিশ্চিত করেছেন। তবে মেলা বন্ধের বিষয়ে

আন্দোলনকারীদের গ্রেফতারে হুমকি প্রদানে

বীরগঞ্জ উপজেলা দুনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির

সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবু সামা মিয়া

অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

Spread the love