বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে এক মটর সাইকেল চোর আটক

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে গত বুধবার রাত ৮টায় এক মটর সাইকেল চোর এবং তাদের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে এক ওয়াচার কনষ্টেবলকে আটক করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে দিয়েছে জনতা। আটক চোর খানসামা উপজেলার খামার ইউনিয়নের ভাঙ্গার দহ গ্রামের আজিজুল ইসলামের পুত্র মোঃ আহসান হাবীব (১৯)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের ধুলাউড়ি গ্রামের নুর ইসলামের পুত্র মোঃ আকছাদ আলী ধুলাউড়ি জামে মসজিদের সামনে একটি ভারতীয় তৈরী বাজাজ সিট-১০০ সিসি রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মটর সাইকেল রেখে এশার নামাজ পড়তে যায়। নামাজ শেষ করে বেড়িয়ে এসে দেখে উক্ত যুবক তাঁর মটর সাইকেলটি অন্য চাবি দ্বারা চালু করার চেষ্টা করছে। মটর সাইকেল মালিকের চিৎকারে চোর পালিয়ে যাবার চেষ্টা করলে আশে-পাশের লোকজন তাকে ধরে ফেলে। এ সময় অনতিদুরে দাড়িয়ে থাকা দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। ঘটনার পর পরই খানসামা থানার ওয়াচার কনষ্টেবল মোঃ শাহীন রহমান সেখানে গিয়ে ধৃত চোরকে দ্রুত থানায় দিতে চাপ সৃষ্টি করে। এ সময় জনতা তাকে চোরের সহযোগী সন্দেহে আটক করে দুজনকেই স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. কেএম কুতুব উদ্দিনের নিকট সোর্পদ করে। চেয়ারম্যান বিষয়টি বীরগঞ্জ এবং খানসামা থানাকে অবহিত করে।

সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ থানার এসআই মাসুদ রানা ঘটনাস্থলে গিয়ে ধৃত চোর এবং ওয়াচার কনষ্টেবল শাহীনকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

শতগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. কেএম কুতুব উদ্দিনের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,  ঘটনার সময় সে পথ দিয়েই ওয়াচার কনষ্টেবল মোঃ শাহীন রহমান কালীর মেলায় যাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি ঘটনার স্বীকার হয়েছেন। এ ব্যাপারে  তার কোন প্রকার সংশ্লিষ্টতা খুজে পাওয়া যায়নি। উল্লেখ,  মটর সাইকেল চোরদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে বীরগঞ্জ। এ কারণে মটর সাইকেল মালিকদের কাছে এই উপজেলা এখন আতংকিত জনপদ।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email