শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে দাসপাড়া শ্মশান রক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানবন্ধন

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ রহমত আলী এবং আব্দুর রাজ্জাক মেম্বার কর্তৃক নিজপাড়া ইউনিয়নের ঢেপা নদীর চর দাসপাড়া শ্মশানের মাটি উত্তোলন ও মৃত ব্যক্তিদের সমাধি ভাংচুরের প্রতিবাদে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ঢেপা নদীর চর দাসপাড়া শ্মশান রক্ষা সংগ্রাম কমিটির উদ্যোগে শনিবার বেলা ১১টায় একটি বিক্ষোভ মিছিল পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে বিজয় চত্ত্বর প্রাঙ্গনে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ বীরগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক দিপঙ্কর রাহা বাপ্পির সভাপতিত্বে মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাকারিয়া জাকা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরিয়াস সাঈদ সরকার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুর ইসলাম নুর, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কালিপদ রায়, পুজা উদযাপন কমিটির সাবেক সভাপতি বিমল দাস, নিজপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ রফিকুল আসলাম, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ বীরগঞ্জ পৌর শাখার সভাপতি রতন ঘোষ পিযুষ, ঢেপা নদীর চর দাসপাড়া শ্মশান কমিটির সভাপতি নরেন দাস, কমিটির সদস্যা কবিতা দাস প্রমুখ।

আগামী ২৪ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তদের বালুম উত্তোলনের ইজারা বাতিলের দাবি জানিয়ে বক্তাগণ বলেন, দ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেফতার এবং অবৈধ ড্রাম ট্রাক ও ভেকু দিয়ে বালু উত্তোলন বন্ধু করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

জানা গেছে, উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের ঢেপা নদীর চর দাসপাড়া শ্মশান এলাকায় নিজপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ রহমত আলী ও অপর আওয়ামীলীগ নেতা নিজপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুর রাজ্জাক ভেকু দিয়ে বালু সঙ্গে ড্রাম ট্রাকে বিক্রি করে আসছিল।
বালু উত্তোলনের কারণে মৃত ব্যক্তিদের সমাধি ভেঙ্গে যায় বলে দাবি এলাকাবাসীর। শ্মশান ও সমাধিস্থল ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার কারণে শুক্রবার সকালে দাস পাড়া এলাকার সনাতন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের লোকজন বালু উত্তোলনে বাধা প্রদান করলে ইজারাদারের লোকজন তাদেরকে মারপিট করে। এতে বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে এলাকার মানুষ। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email