শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে পায়ের রগ কর্তনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে পায়ের রগ কর্তনের ঘটনায় এখনো থানায় মামলা হয়নি। দিনাজপুর মেডিকেল কলেজে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন ভোগনগর ইউনিয়নের চাউলিয়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের পুত্র মোঃ সাদেকুল ইসলাম (৪২)। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী বলে জানা গেছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আহত সাদেকুল গত বুধবার রাত আনুমানিক ৯ টার সময় বড় বটতলী বাজার থেকে পায়ে হেটে বাড়ি ফেরার পথে ঢাকা-পঞ্চগড় মহাসড়কের বটতলী উচ্চ বিদ্যালয় সামনে ১৩/১৪ জনের এক দুবৃত্ত তাকে পিছন থেকে ধরে পার্শ্ববর্তী মাঘুর ভূট্টা ক্ষেতে নিয়ে য়ায়।  এ সময় তার হাত-পা রশি দিয়ে এবং পরনের কাপড় দিয়ে মুখ বেধে ফেলে। তারপর দুই পায়ের রগ কেটে দিয়ে পালিয়ে যায়। ভোরে পথচারী এবং এলাকাবাসী রক্তাক্ত ও সংগাহীন অবস্থায় দেখতে পেয়ে তার বাড়ীতে সংবাদ দেয়। সংবাদ পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে। সেখানে তিনি মৃতুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।

আহত সাদেকুল বাবা জসিম উদ্দিন জানান, পুলিশের সোর্স অভিযোগে তার ছেলের উপর হামলা করা হয়েছে বলে হামলার সময় দুর্বৃত্তরা জানিয়েছেন।

পরিবারের নিরাপত্তাহীনতার কথা উলেস্নখ করে সাদেকুলের পুত্র মোঃ সাদ্দাম হোসেন জানান, আমি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকলেও আমার বাবা শ্রমজীবি সাধারণ মানুষ। কোন রাজনীতি সাথে জড়িত নয়। তাই কারা হামলা করেছে এ ব্যাপারে এখন পর্যমত্ম নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছি না।

চিকিৎসার বিষয়ে ব্যসত্ম থাকায় এ ব্যাপারে এখন কোন মামলা হয়নি বলে তিনি জানান।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email