রবিবার ২২ মে ২০২২ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে ভাবীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৭জনের বিরুদ্ধে মামলা

মোঃ আবেদ আলী, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকেঃ বীরগঞ্জে ভাবীকে জোর পূর্বক ধর্ষন ও গর্ভপাত করার অপরাধে গত সোমবার দেবরকে প্রধান আসামী করে ৭ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন ভাবী।

বীরগঞ্জ থানার মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের আরাজী মিলনপুর গ্রামের মরহুম আবু তাহেরের স্ত্রী আয়শা বেগম (৩০)’র দুই বছর পূর্বে চার সন্তান রেখে স্বামী মারা যায়। স্বামীর মৃত্যুর পর নিয়ে নিজ বাড়িতেই বসবাস করাকালে দেবর আশাবুদ্দিনের আশ্রয়ে ছিলেন। দেখা-শুনার অজুহাতে ভাবীর বাড়িতে যাতয়াতের এক পর্যায় দেবর-ভাবীর মাঝে সম্পর্ক গড়ে উঠে।  এক পর্যায়ে দৈহৃক সম্পর্কের কারণে ভাবী অন্ত:সত্বা হয়ে পড়ে।

বিষয়টি জানাজানি হলে লোক লজ্বায় সমাজে থাকা যাবে না এমনটি বুঝিয়ে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গর্তপাত করেন চতুর দেবর।

ঘটনার পর বিয়ে না করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিলে আয়শা বেগম নিজে বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী) ৯(১) তৎসহ দন্ডবিধি ৩২৩,৩৭৯,৩১৩/৩৪ ধারায় দেবর আশাবুদ্দিনকে প্রধান আসামী করে একই পরিবারের ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় গত ০১ মার্চ মামলা দায়ের করেছেন। -মামলা নং-১৪।

বীরগঞ্জ অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরমান আলী (পিপিএম) মামলার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বাদীর আয়শা বেগমের ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে। মামলার অভিযুক্ত ধর্ষক দেবরসহ অন্যরা পলাতক রয়েছে, গ্রেফতারের জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email