শনিবার ২১ মে ২০২২ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে শহীদ মিনার ভাংচুর। সন্দেহের তীর মৌলবাদী দিকে

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে পাল্টাপুর ইউনিয়নের সনকা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে অবস্থিত শহীদ মিনারটি অজ্ঞাত দুস্কৃতিকারীরা ভেঙ্গে ফেলেছে। গত শনিবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছে পুলিশ ।

সনকা দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব ওবাইদুর ইসলাম জানান, গত ৮ অক্টোবর হতে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত পুঁজা ও ঈদ উপলক্ষে বিদ্যালয় ছুটি ঘোষণা করা হয়। ছুটি শেষে গত সোমবার বিদ্যালয় যথারীতি ক্লাস শুরু হলে গত বুধবার পর্যন্ত শহীদ মিনারটি অক্ষত ছিল। বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে জানতে পারি শহীদ মিনারে দুটি সত্মম্ভ ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। আমি তাৎক্ষনিক ভাবে বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতিকে অবহিত করি।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও পাল্টাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রহমান জানান, ১৯৮০-৮২ সালের দিকে এই শহীদ মিনারটি নির্মিত হয়। এই এলাকায় শহীদ মিনার ভাংচুরের ঘটনা কখনো ঘটেনি। চলমান রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে মৌলবাদীরা এ ঘটনা ঘটাতে পারে। এ ব্যাপারে আজ শনিবার আমরা জরুরী ভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভা আহবান করেছি। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক আজই প্রধান শিক্ষক এ ব্যাপারে লিখিত ভাবে বীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ জানাবে। এবং এই শহীদ মিনারটি পুনরায় নির্মাণ করা হবে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে বীরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আরমান হোসেন পিপিএম জানান, শুক্রবার রাতে আমি শহীদ মিনার ভেঙ্গে ফেলার বিষয়ে জানতে পারি। তাৎক্ষনিক ভাবে বিষয়টির খোঁজখবর নিতে একজন এসআইকে দায়িত্ব দেই। আজ শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে আমরা সাধারণ একটি ডাইরী করে বিষয়টি খতিয়ে দেখবো। আর যদি কেউ অভিযোগ দায়ের করে তাহলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email