সোমবার ১৬ মে ২০২২ ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে ১৮দলের শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের। গ্রেফতার-৬ জন

Arestমীর কাসেম লালু : দিনাজপুরের বীরগঞ্জে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১৮ দল এবং শিল্প পুলিশ রাতেই বীরগঞ্জ থানার এসআই সুশান্ত কুমার সরকার বাদী হয়ে ১৮দলের ১৮জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত শতাধিক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামরা দায়ের করেছেন। মামলা নম্বর-০২।

পুলিশ ঐ রাতে অভিযান চালিয়ে ৪জনকে গ্রেফতার করেছে। তারা হলেন- উপজেলা ভোগনগর ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামের মোঃ আব্দুল ওহাবের পুত্র কারী মোঃ মোস্তফা কামাল (৫০), একই গ্রামের মোঃ আক্তারুল ইসলামের পুত্র মোঃ জুয়েল (৩১), মোস্তফা কামালের পুত্র মোঃ এমদাদুল ইসলাম(১৯), মোঃ ওবায়দুল হকের পুত্র মোঃ আমিনুল ইসলাম (১৮) সহ আহত  ভোগনগর ইউনিয়নের পূর্ব চাউলিয়া গ্রামের মৃত আতিকুল্লাহর পুত্র মোঃ সুলতান (৫০), এলাইগাঁও গ্রামের  রবিউল ইসলামের পুত্র মোঃ শামীম (২৫) কে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যায় উপজেলার ভোগনগর ইউনিয়নের কবিরাজ হাটে ১৮দল একটি মিছিল বের করে। এ সময় পঞ্চগড়গামী শিল্প পুলিশ বহনকারী কয়েকটি বাসে মিছিলকারীরা হামলা চালায়। শিল্প পুলিশ হামলাকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে প্রথমে লাটি চার্জ পরে গুলি বর্ষণ করে। আধা ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে ৪ জন গুলিবিদ্ধসহ অর্ধশতাধিক জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন-নিজ চাকুরীস্থলে কর্মরত অবস্থায় পৌর শহরের মৃত ডা. মসলেম উদ্দিনের পুত্র কবিরাজ হাট জনতা ব্যাংকের কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল কাইয়ুম (৫৫), ভোগনগর ইউনিয়নের পূর্ব চাউলিয়া গ্রামের মৃত আতিকুলস্নাহর পুত্র মোঃ সুলতান (৫০), এলাইগাঁও গ্রামের  রবিউল ইসলামের পুত্র মোঃ শামীম (২৫), বিজয়পুর গ্রামের মোঃ হাসান আলীর পুত্র ডা. রাশেদুল ইসলাম (৩৪)। ৪ জন গুলিবিদ্ধসহ অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। আহত সুলতাল এবং শামীমকে আশংকাজনক অবস্থায় প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email