বৃহস্পতিবার ১১ অগাস্ট ২০২২ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বোচাগঞ্জের কৃষক কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্ত্তুত ও বোরো রোপনে ব্যস্ত

চলতি বোরো মৌসুমে বোচাগঞ্জের কৃষক-কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্ত্তত ও বোরো ধানের চারা লাগানো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ৯ হাজার ৬শ ৬৫ হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫শ ৫০ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড জাতের ধান ও ৯ হাজার ১শ ১৫ হেক্টর জমিতে উফশী জাতের ধান। এ বিষয়ে পড়িয়াল পুর গ্রামের কৃষক আঃ বারেক জানান, ২৫ বিঘা জমিতে বোরো ধান আবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম কিমুও শৈত্য প্রবাহের কারনে বীজতলা নষ্ট হয়েছে । বীজতলার অভাবে বাধ্য হয়েই ৫ বিঘা জমি বাদ রেখে ২০ বিঘা জমিতে আবাদ করার চিন্তা করছি। আখাপুর গ্রামের কৃষক মোঃ জহুরুল ইসলাস কালু জানান, গত আমন মৌসুমে ৭ বিঘা জমিতে চাষাবাদ করেছিলাম কিন্তু ফসলের তেমন দাম পাওয়া যায়নি। এ বছর জ্বালাণী তেল সহ সার ও বীজের দাম একটু বেশী তাই ৫ বিঘা জমিতে বোরো ধান আবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, ঠান্ডা জনিত কারনে চারা দুর্বল হলেও কৃষক ভাইদের যথাযথ পরামর্শ ও লিফলেট প্রদানে উদ্বুদ্ধ করে প্রয়োজন অনুযায়ী বীজতলা তৈরী করা হয়েছে। সঠিক বয়সের সুস্থ্য সবল দুটি করে চারা সাড়িতে রোপন করা হলে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বীজের সংকট হবে না। এদিকে ফসলের মাঠ প্রস্ত্তুত করতে কৃষক-কৃষানীরা এখন সারাদিন মাঠের মধ্যে সময় কাটাচ্ছেন। তাদের এই ব্যস্ততা চলবে ৩০ থেকে  ৩৫ দিন পর্যন্ত এই আবাদ সময়ে কৃষকদের কাছে চারা লাগানোর কাজে নিয়োজিত কামলাদের কদর অনেক বেশী।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email