সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ক্ষমতায় এলে স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হবে-এরশাদ

 জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, বিএনপি সারের জন্য ১৮ এবং কানসাটে বিদ্যুতের জন্য ২০ জনকে হত্যা করেছেন। এদের সবার নাম লেখা আছে। ক্ষমতায় এলে তাদের জন্য স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হবে।’

বুধবার বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা বেশি। জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় এলে শিক্ষাঙ্গনে রণাঙ্গন থাকবে না। কোনো মায়ের বুক খালি হবে না। প্রতিটি কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের সংসদে নির্বাচন হবে। এখন তাদের লক্ষ্য একটাই ১৫১ আসনে জয়লাভ।

তার সৃষ্টি উপজেলার কারণে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে পৌঁছেছে- দাবি করে এরশাদ বলেন, ‘কেন মুক্তিযুদ্ধ হলো? কেন অস্ত্র হাতে নিলাম? কারণ আমরা বৈষম্যের শিকার ছিলাম। আশা করছিলাম যে দুঃশাসনে আমরা নিষ্পেষিত হয়েছিলাম তা থেকে মুক্তি পাব। কিন্তু সে আশা পূরণ হয়নি।’

এরশাদ বলেন, ‘পাকিস্তানি বাহিনী দেশকে মেধাশূন্য করতে গুম-খুন-হত্যা করেছিল। কিন্তু বর্তমান সরকারের সময়ও একইভাবে গুম-খুন করা হচ্ছে। এ সংস্কৃতি চাই না। গুম-খুন থেকে মুক্তি চাই। আমরা শান্তিতে থাকতে চাই। দেশে এভাবে গুম-খুনের রাজনীতি চলতে পারে না।’

জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু বলেন, ‘ক্ষুধা, সন্ত্রাস ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়ার যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন করা হয়েছিল, তা পূরণ হয়নি। প্রতিনিয়ত বিশ্ববিদ্যালয়ে খুন হচ্ছে। একই দলের ছাত্রসংগঠনের কর্মীরা দ্বন্দ্বে খুন হচ্ছে। এসব খুনের দায় জাতীয় পার্টি নেবে না।’

সভায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রেসিডিয়াম সদস্য, পানি সম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, শেখ সিরাজুল ইসলাম, এস এম ফয়শল চিশতী, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজি সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, ভাইস চেয়ারম্যান রওশন আরা মান্নান এমপি, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া প্রমুখ।

Spread the love