শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারত পাকিস্তান বাংলাদেশ বিশ্বকাপ একাদশে নেই

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) বিশ্বকাপ একাদশে স্থান হয়নি ভারত. পাকিস্তান ও বাংলাদেশের কোন খেলোয়াড়ের।

তবে বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে বিধ্বস্ত হয়ে প্রথমবারের মত শিরোপার স্বাদ না পেলেও আইসিসির বিবেচনায় বিশ্বকাপের সেরা একাদশে ঠিকই প্রাধান্য বিস্তার করেছে ধারাবাহিক পারফর্ম করা নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়রা।

একইসাথে কিউই অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালামও ওই দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হয়ে আরেকবার নিজের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন।

দলে থাকা সর্বোচ্চ ৫জন ব্ল্যাক ক্যাপস খেলোয়াড়ের মধ্যে ম্যাককালাম একজন। এছাড়া বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া দলের রয়েছেন ৩জন।

এক বিবৃবিতে আইসিসি জানিয়েছেন, ৪৪ দিনের টুর্নামেন্টে আগ্রাসী, উদ্ভাবনী এবং অনুপ্রেরণাদায়ক নেতৃত্বের কারণেই ম্যাককালামকে অধিনায়ক হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে। তার এ সুযোগ্য নেতৃত্বের কারনেই নিউজিল্যান্ড প্রথমবারের মত বিশ্ব আসরের ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।

শুধুমাত্র দলকে নেতৃত্ব দেয়াই নয় ব্যাট হাতে ৯ ম্যাচে ৪টি হাফ সেঞ্চুরিসহ ১৮৮.৫০ গড়ে ম্যাককালাম ৩২৮ রান সংগ্রহ করেছেন। বিশ্ব একাদশে থাকা অপর কিউই খেলোয়াড়রা হলেন কোরি এন্ডারসন, ট্রেন্ট বোল্ট, মার্টিন গাপটিল এবং ড্যানিয়েল ভেট্টরি। বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া থেকে নির্বাচিত খেলোয়াড়রা হলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, স্টিভেন স্মিথ এবং মিচেল স্টার্ক। দলের অপর খেলোয়াড়রা হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স এবং মর্নে মরকেল এবং উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান হিসেবে শ্রীলংকার কুমার সাঙ্গাকারা। দ্বাদশ ব্যক্তি হিসেবে রয়েছেন জিম্বাবুয়ের ব্রেন্ডন টেইলর।

আইসিসির নির্বাচক প্যানেল জানিয়েছে, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের ২ ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও শাইমান আনোয়ার, ভারত ও পাকিস্তানের ফাস্ট বোলার উমেশ যাদব, মোহামম্মাদ শামী, ওয়াহাব রিয়াজ এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতের ২ স্পিনার ইমরান তাহির ও রবিচন্দ্রন আশ্বীন অল্পের জন্য সেরা একাদশে জায়গা পাননি।
এ সম্পর্কে প্যানেল চেয়ারম্যান এবং আইসিসি জেনারেল ম্যানেজার ক্রিকেট জিওফ অলড্রিচ বলেছেন, ১২ জনের সেরা একাদশ বাছাই করা প্যানেলের জন্য অত্যন্ত কঠিন একটি কাজ ছিল। প্রতিটি দলেই বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় এবারের টুর্নামেন্টে দূর্দান্ত পারফরমেন্স দেখিয়েছে। দুটি ডাবল সেঞ্চুরি, ৩৮টি সেঞ্চুরি, দুটি হ্যাটট্রিক এবং ২৮টি ৪ উইকেট শিকারের এ টুর্নামেন্টে এমন অনেক ঘটনাই ছিল যেগুলোকে সহজেই বিশ্ব একাদশের দল নির্বাচনে আমলে নেয়া যায়। তবে অলড্রিচের মতে তারা মূলত একটি দলের পারফরমেন্সের দিকে বিশেষ নজড় দিয়েছিল যারা পুরোটাই ব্যালেন্সড দল এবং নিজেদের দিনে তারা যেকোন দলকে হারাতেও পারঙ্গম ছিল।

এবারের বিশ্ব একাদশ
মার্টিন গাপটিল (নিউজিল্যান্ড), ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড-অধিনায়ক), কুমার সাঙ্গাকারা (শ্রীলংকা), স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া), এবি ডি ভিলিয়ার্স (দক্ষিণ আফ্রিকা), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া), কোরি এন্ডারসন (নিউজিল্যান্ড), ড্যানিয়েল ভেট্টরি (নিউজিল্যান্ড), মিচেল স্টার্ক (অস্ট্রেলিয়া), ট্রেন্ট বোল্ট (নিউজিল্যান্ড), মর্নে মরকেল (দক্ষিণ আফ্রিকা), ব্রেন্ডন টেইলর (জিম্বাবুয়ে-দ্বাদশ ব্যক্তি)।

Spread the love