রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মাতৃ মৃত্যুর হার ও নবজাতক শিশুর মৃত্যুর হার হ্রাসকরন ও নবজাতকের বিপদ চিহ্নিতকরন এবং নবজাতকের অসুস্থতার যত্ন নেওয়ার বিষয়ক এডভোকেসি সভা

দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ ‘নবজাতকের বিপদচিহ্ন জানুন নবজাতকের মৃত্যু রোধ করুন’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে লাইফস্টাইল, হেলথ এডুকেশন এন্ড প্রমোশন স্বাস্থ্য শিক্ষা ব্যুরো, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য বিভাগের আয়োজনে প্লে ডক্টর কনসালটিং ফার্মের সহযোগিতায় দিনাজপুর সিভিল সার্জন অফিস এর বাস্তবায়নে মাতৃ মৃত্যুর হার (এমএমআর) ও নবজাতক শিশুর মৃত্যুর হার (আইএমআর) হ্রাসকরন ও নবজাতকের বিপদ চিহ্নিতকরন এবং নবজাতকের অসুস্থতার যত্ন নেওয়ার বিষয়ক উদ্বুদ্ধকরন এডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়।
গত বুধবার সকাল ১০টায় দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে (নার্সিং ইনস্টিটিউট) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্যাকেজ নং-এল,এইচ,ই,পি-২০২১-২০২২-এস-০১ এর বাস্তব্যয়িতব্য কাজের অংশ হিসেবে জনপ্রতিনিধি, ধর্মীয় নেতা, প্রাইমারি ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগন, জেলা পযার্য়ের সংশ্লি®ট এনজিওর কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিক, স্বাস্থ্য বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর অংশগ্রহনে মাতৃ মৃত্যুর হার ও নবজাতক শিশুর মৃত্যুর হার হ্রাসকরন ও নবজাতকের বিপদ চিহ্নিতকরন এবং নবজাতকের অসুস্থতার যত্ন নেওয়ার বিষয়ক এডভোকেসি সভাতে অনুষ্ঠানের সভাপতি দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ এ এইচ এম বোরহান-উল-ইসলাম সিদ্দিকী উদ্বোধনী ও শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, প্রতি বৎসর বাংলাদেশে ৫ হাজার দুইশত জন নারীর মৃত্যু হয় প্রসবকালীন এবং জন্মের পর সৃষ্ট জটিলতায় আর প্রতি বৎসর নবজাতকের মৃত্যুর সংখা প্রায় ৬২ হাজার। এই কর্মসূচী বাস্তবায়নের জন্য সকল স্তরের মানুষদের সহযোগিতার প্রয়োজন। মাতৃ মৃত্যুর হার ও নবজাতক শিশুর মৃত্যুর হার কমাতে হলে প্রতিটি পরিবারকে এই বিষয়ে সচেতন করে গড়ে তুলতে হবে। পরিবারের অভিবাবককে হোম ডেলিভারী কমিয়ে নিকটস্থ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যেতে অনুপ্রানিত হতে হবে। স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীদের আরও যত্নশীল দায়িত্ব পালনে একনিষ্ঠ ভূমিকা রাখতে হবে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম।
এডভোকেসী সভাতে জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম এর অনবদ্য সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা তথ্য অফিসের সিনিয়র তথ্য অফিসার মোঃ সোহেল মিয়া, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মুহাম্মাদ সাাদিকুর রহমান। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডাঃ কাওসার আহম্মেদ তথ্য ভিত্তিক আলোচনা করেন। উনমুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহন করেন দিনাজপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ হাবিবুল ইসলাম, বাংলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নেজামুল ইসলাম, সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক রওশনা আরা, পল্লী শ্রীর প্রোগ্রাম ম্যানেজার শামসুর নাহার। উল্লেখ্য এই কর্মসূচীর অংশ হিসেবে দিনাজপুর সদর উপজেলা ৬ নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নে বলদিয়া পুকুর ও কাশীমপুর দুইটি কমিউনিউটি ক্লিনিকে উদ্বুদ্ধকরন মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email