বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাহবুব আলম ননী’র সংবাদ সম্মেলন

দিনাজপুর থেকে শামীম রেজা : ভূমিদস্যু ফয়েজউদ্দিনের অপতৎপরতা রোধ, বৈধ সম্পত্তি গ্রাস, ষড়যন্ত্র ও নানা হুমকি প্রদানের প্রতিকার চেয়ে মাহবুব আলম ননী দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সংবাদসম্মেলন করেছেন।

বুধবার সকালে সংবাদ সম্মেলনে মাহবুব আলম ননীর পক্ষে ভাতিজা মোঃ খাদেমুল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে বলেন, দিনাজপুর পৌরসভার অধীন এনএ মার্কেটের দোতলা ঘর নং ১৩৪ এবং হোল্ডিং নং ১৩১২/ ১২১৪ আমার ক্রয়কৃত এবং সেই সাথে জেলা প্রশাসক কার্যালয় হতে লীজ নেয়া। উক্ত ঘরটি আমি দীর্ঘদিন ধরে ভোগ দখল ও সেখানে আমার টেইলারিং দোকান চালু করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। ২ জুন ২০০৩ জাতীয় পার্টি দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক চৌধুরী নবাব উক্ত দোকান ঘরটি তার ভাড়াটিয়া দাবী করে সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে একটি মোকদ্দমা আনয়ন করেন। যার নং ৬৯/ ২০০৩ অন্য। মামলায় বিবাদী করা হয়, মনোরঞ্জন শীল গোপাল, পিতা দীনেশ চন্দ্র শীল, রফিক উদ্দীন চৌধুরী মুন্না পিতা মৃত-একিন উদ্দীন চৌধুরী এবং আমি মাবুবব আলম ননী, পিতা মৃত আব্দুর রহিমকে। আনোয়ারুল হক চৌধুরীর মামলার আর্জিতে বলা হয়, উক্ত জমি তিনি কবলা সূত্রে মালিক ফয়েজ উদ্দীন আহমেদের নিকট হতে ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছেন। ফয়েজ উদ্দীন আহমেদ উক্ত জমি তার পূর্বাধিকারী মালিকদের কাছ হতে ৩০ ডিসেম্বর ৯১ ক্রয় করেছেন।

কিন্তু উক্ত জমির প্রকৃত মালিক ছিলেন জান মোহাম্মদ নামে একজন অবাঙ্গালী। তিনি ১৯৭৬ সালে মারা যান। ফয়েজ উদ্দীন সম্পত্তি গ্রাস করার উদ্দেশ্যে একটি মিথ্যা কবলা প্রস্ত্তত করে তার দ্বারা আনোয়ারুল হক চৌধুরীকে দিয়ে উপরোক্ত মামলা আনয়ন করেন। বাদী উক্ত মোকদ্দমা করার স্বার্থে এক বছর আগে বায়নানামা চুক্তি প্রস্ত্তত করেন। যা মিথ্যা এবং বে-আইনী।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বলেন, চলতি বছরের ১৮-নভেম্বর তারিখ আনুমানিক বিকেল ৩টার দিকে আমার ১৩৪ নং বিল্ডিংয়ের সাইনবোর্ড কতিপয় সন্ত্রাসীরা খুলে নিয়ে যায়। সেই থেকে আমি আমার দোকান নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি এবং আমার পরিবারও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। আমাকে বিভিন্ন সময় মোবাইল ফোনে প্রান নাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে মাহবুব আলম ননী বৈধ সম্পত্তি জবর দখলের ষড়যন্ত্রের প্রতিকার ও ভূমি দস্যুদের অপতৎরতা রোধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সহযেগিতা কামনা করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে মাহবুব আলম ননী, মোঃ শামিম, মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, মঞ্জুরুল ইসলাম, মোঃ মানিক হোসেনসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love