শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মিসরে নির্বাচনে লড়তে সেনাপ্রধান সিসির পদত্যাগ

Egypts Armyইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: মিসরে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে সেনাপ্রধানের পদ ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন ফিল্ড মার্শাল আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি। তিনি নির্বাচিত সরকারকে উৎখাতের প্রায় নয় মাস পর দেশকে ‘সন্ত্রাসবাদ’ মুক্ত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। গত বুধবার রাতে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে এ ঘোষণা দেন সিসি। মিসরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন জুন মাসের আগে হতে পারে। ওই নির্বাচনে সিসি জয়ী হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। সামরিক উর্দি পরে টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে সিসি বলেন, তিনি শেষবারের মতো সামরিক পোশাক পরেছেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ে দেশ রক্ষার জন্য এই পোশাক ছেড়ে দিচ্ছেন। সিসি দাবি করেন, তিনি জনগণের ডাকে সাড়া দিয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ছেন। আধুনিক ও গণতান্ত্রিক মিসর গড়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। মিসরের আইন অনুযায়ী বেসামরিক ব্যক্তিই কেবল প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে পারেন। এ কারণে সিসিকে তাঁর পদ ছাড়তে হলো।

গত বছরের জুলাইয়ে রক্তপাতহীন এক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে দেশটির প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করেন সেনাপ্রধান সিসি। এরপর মিসরের কর্তৃত্ব নিজের নিয়ন্ত্রণে নেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সিসি লড়তে পারেন বলে আগে থেকেই ধারণা করা হচ্ছিল। ভাষণে ৫৯ বছর বয়সী ফিল্ড মার্শাল সিসি মিশরের জনগণের উদ্দেশে বলেন, তিনি মাত্র ১৫ বছর বয়সে একজন ক্যাডেট হিসেবে প্রথম সামরিক পোশাক পরেন। তিনি আরো বলেন, ‘দেশ রক্ষায় সামরিক পোশাক পরতে আমি সবসময় গর্ববোঁধ করবো।’ মিশরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মনোনয়ন প্রক্রিয়া শুরুর তারিখ আগামী রোববার ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে সরকার এখনো নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ না করলেও অমত্মবর্তী প্রেসিডেন্ট আদলি মনসুরের বরাত দিয়ে এ মাসের গোড়ার দিকে আল-আহরাম সংবাদপত্রের খবরে বলা হয়, আগামী ১৭ জুলাই নাগাদ এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। বামপন্থী রাজনীতিবিদ হামদিন সাবাহি সিসির বিরুদ্ধে একমাত্র প্রার্থী হতে যাচ্ছেন। ২০১২ সালের নির্বাচনে তিনি তৃতীয় অবস্থানে ছিলেন। এদিকে সশস্ত্র বাহিনীর বর্তমান চিফ-অব স্টাফ জনোরেল সাদকি সবহি ফিল্ড মার্শাল সিসির উত্তরসূরি হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।