রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যানবাহনের মালিক ও চালকদের সচেতনতা বৃদ্ধি করণ প্রসংগে মতবিনিময়

গতকাল ১১ ঘটিকায় দিনাজপুরের ট্রাক, বাস ও অয়েল ট্যাংকার মালিক সমিতির লোক জনের সাথে ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের ব্যবস্থাপনায় একটি মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত সভায় কর্ণেল হ্লা হেন মং,   উপ মহাপরিচালক, সেক্টর কমান্ডার, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, সেক্টর সদর দপ্তর, দিনাজপুর বলেন যে, রাস্তায় গাড়ী চলাচলের ক্ষেত্রে আমরা সকলে ব্যক্তিগত পর্যায়ে একটু সচেতন হলেই পেট্রোল বোমার হাত থেকে যানবাহন ও জানমালের রক্ষা সম্ভব হবে এমনকি কোন যানবাহন আক্রামত্ম হলেও তা প্রয়োজনীয় উপকরণ (ফায়ার ইষ্টিংগুইসার, প্রাথমিক চিকিৎসা বক্স, বালি, বালতি, পানির জারিকেন) যানবাহনের সঙ্গে থাকলে তা নিয়ন্ত্রনে আনা সম্ভব হবে। সেক্টর কমান্ডার বিজিবি দিনাজপুর সকল বাস, ট্রাক ও অয়েল ট্যাংকার মালিক সমিতির লোকজনদেরকে রাত ২১০০ ঘটিকার পর বাস, ট্রাক, অয়েল ট্যাংকার ও অন্যান্য যানবাহন চলাচলের ব্যাপারে নিরুৎসাহিত করেন। তিনি এ প্রসঙ্গে আরও উলেস্নখ করেন যে, ২০ দলীয় জোট কর্তৃক অনির্দিষ্টকালের জন্য ডাকা অবরোধের প্রেক্ষিতে দিনাজপুর জেলায় ২ এবং ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন কর্তৃক সার্বক্ষনিক সার্বিক নিরাপত্তা প্রদান সহ পণ্য ও যাত্রী পরিবহণকারী যানবাহন চলাচলে বেসামরিক প্রশাসনকে নিরাপত্তা সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। অবরোধের কারনে দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রয়োজনীয় সংখ্যক বিজিবি’র সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

২ এবং ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় বেসামরিক জনগনের জানমালের নিরাপত্তায় উলেস্নখিত স্থান সমূহে যাত্রীবাহী বাস, পন্যবাহী ট্রাক, অয়েল ট্যাংকার, কার্গো, কভার্ডভ্যান যাতায়াতের সহায়তাসহ এস্কর্ট করে বিভিন্ন গত্মব্যে পৌঁছানো হচ্ছে। বিজিবি কর্তৃক প্রতিদিন গড়ে ৪৬০ টি বিভিন্ন প্রকারের যানবাহন চলাচলে এস্কর্টসহ সহায়তা প্রদান করা হয়। গত কয়েক দিনে বাস ৪৬৬ টি, ট্রাক ৭,১২৮ টি, অয়েল ট্যাংকার ২৬৬ টি, কার্গো ২৫২ টি এবং অন্যান্য যানবাহন ৫১টি মোট ৮,১৬৩ টি যানবাহন এর্স্কট করা হয়েছে এবং বাস ২১০ টি, ট্রাক ৪৯০১ টি, অয়েল ট্যাংকার ১১০ টি, কার্গো ৭১০ টি এবং অন্যান্য যানবাহন ১৯৮টি মোট ৬,১২৯ টি যানবাহন যাতায়াতের জন্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। শুধুমাত্র দিনাজপুর জেলায় ২ এবং ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন কর্তৃক এযাবৎ পর্যন্ত সর্বমোট ১৪,২৯২ টি যানবাহনকে এস্কর্ট/সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়াও পুলিশ, র‌্যাব, বেসামরিক প্রশাসনের সমন্বয়ে বিশেষ টাস্কফোর্স অপারেশন পরিচালনা করে আসছে।

দিনাজপুরের দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় সাধারণ জনগনের জানমাল রক্ষার্থে ২ এবং ২৯ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন সর্বদা প্রস্ত্তত রয়েছে এবং যে কোন ধরনের নাশকতামূলক কর্মকান্ড প্রতিরোধে সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

 

Spread the love