রবিবার ১৪ অগাস্ট ২০২২ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যুক্তরাষ্ট্রে লরি থেকে ৪৬ মরদেহ উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে একটি লরির ভেতর থেকে অন্তত ৪৬ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার (২৮ জুন) এসব মরদেহ খুঁজে পাওয়া যায়।

ধারণা করা হচ্ছে, নিহতরা সবাই অভিবাসন প্রত্যাশী।

স্থানীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, আরও অন্তত ১৬ জনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের খুব ক্লান্ত বলে মনে হচ্ছিল।

ধারণা করা হচ্ছে, লরির মধ্যে ঠাসাঠাসি করে থাকার কারণে গরমের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন তারা। সান অ্যান্তোনিওতে এখন উষ্ণ আবহাওয়া বিরাজ করছে এবং সোমবার সেখানে তাপমাত্রা ছিল ৩৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সান অ্যান্তোনিও ফায়ার ডিপার্টমেন্টের প্রধান চার্লস হুড বলেন, লরির মধ্যে কোনো পানির ব্যবস্থা কিংবা সেটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ছিল না।

তিনি আরও বলেন, রেফ্রিজারেটেড লরি হলেও বোর্ডে ‌‘কোনো দৃশ্যমান কার্যকরী’ কুলিং ইউনিট ছিল না।

কেএসএটি টেলিভিশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গাড়িটি সান অ্যান্তোনিওর দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে রেল সংলগ্ন এলাকায় খুঁজে পাওয়া গেছে।

নিউইয়ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনার পর থেকে গাড়ির চালক লাপাত্তা। সান অ্যান্তোনিওর পুলিশ কর্মকর্তারা তাকে ধরতে অভিযান শুরু করেছেন। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

টেক্সাসের সান অ্যান্তোনিও শহর মার্কিন-মেক্সিকান সীমান্ত থেকে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার (১৫০ মাইল) দূরে অবস্থিত।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট এসব মানুষের মৃত্যুর জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দায়ী করেছেন।

তিনি বলেছেন, বাইডেনের ‘উন্মুক্ত সীমান্ত নীতির ফলাফল’ এটি।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো ইব্রার্ড বলেছেন নিহতদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

কীভাবে এতোগুলো মানুষ মারা গেলো তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয় এবং স্থানীয় পুলিশ এখনে প্রকাশ্যে কোনো মন্তব্য করেনি।

সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email