সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রবিবার নারায়ণগঞ্জে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

নারায়ণগঞ্জে ৭জনকে অপহরণ করে খুন করার প্রতিবাদে আগামী রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে জেলা আইনজীবী সমিতি।বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে পুরোনো বার লাইব্রেরির মিলনায়তনে আয়োজিত এক সমাবেশে আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন এ হরতালে ঘোষণা দেয়া হয়। তিনি বলেন, হরতাল চলাকালে সকাল ১০টায় প্রেসক্লাবের সামনে আইনজীবীদের সমাবেশ হবে। এদিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর নজরুল ইসলামকে অপহরণের পর হত্যার প্রতিবাদে তার সমর্থকরা বৃহস্পতিবারও সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকায় বিক্ষোভ করেছে।
সমাবেশে যোগ দেন বার কাউন্সিলের সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন। তিনি বলেন, এ সরকার খুন ও গুম বন্ধ করতে ব্যর্থ। অপহরণের পর তাদের উদ্ধার করতে পারছে না। এসব অপরাধীকে খুঁজে বের করে শাস্তি দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। সভা শেষে খন্দকার মাহবুবসহ আইনজীবীরা জালকুড়িতে চন্দন সরকারের বাসায় যান। সেখানে তারা নিহতের পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানান।
সাখাওয়াত হোসেন জানান, অপহরণ, গুম, হত্যার প্রতিবাদে এবং অবিলম্বে অপহরণকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে আগামী রবিবার নারায়ণগঞ্জে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল কর্মসূচি পালন করা হবে। নারায়ণগঞ্জের সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এ কর্মসূচিতে সমর্থন দিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

বিক্ষোভকারীরা শিমরাইল মোড়ে অবস্থান নিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের আরেক কাউন্সিলর নূর হোসেনের কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে পুলিশ ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনার পর মহাসড়কে পুলিশ ও বিজিবি টহল দিচ্ছে। তবে মহাসড়কে যানবাহন চলাচল করছে না।
গত রবিবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে এক দল লোক একসঙ্গে সাত ব্যক্তি অপহরণ করে। অপহৃতরা হলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ নজরুল ইসলাম, তার বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন, নজরুলের গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম, আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার ব্যক্তিগত গাড়ির চালক ইব্রাহিম। গত বুধবার দুপুরে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ৬ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। অরপদিকে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে আরো একটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশটি প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামের গাড়িচালক জাহাঙ্গীরের বলে ধারণা করা হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের শান্তিনগর এলাকা সংলগ্ন শীতলক্ষ্যা নদীতে লাশটি ভেসে উঠে।