শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাণীশংকৈলে ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই ঔষধের রমরমা ব্যবসা

Medicinঠাকুরগায়ের রাণীশংকৈল উপজেলা শহরসহ বিভিন্ন হাট বাজারে ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই অনেকে ঔষধের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে দেখার কেউ নেই। উপজেলার হাট বাজার গুলো ঘুরে দেখা গেছে অনেকে ড্রাগ আইনের তোয়াক্কা না করেই ঔষধ ক্রয় ও বিক্রয়ের ব্যবসা করে আসছে বছরের পর বছর এক শ্রেণীর অসাধু ঔষধ ব্যবসায়ী।
ওষুধ ব্যবসায়ীরা অনেকে শুদ্ধমত বাংলা এবং ইংরেজি পড়তে পারে না। যার ফলে ক্রেতারা পড়ে যায় চরম বিড়ম্বনায়। ওষুধের দোকান ও ফার্মেসি লাইসেন্স প্রতিবছর নবায়নের নিয়ম থাকলেও অনেক ঔষধ ব্যবসায়ী তাদের লাইসেন্স করেন না। ফার্মেসিতে ফ্রিজ থাকা অত্যবশ্যকীয় হওয়া সত্বে ও শতকরা ৮০% ড্রাগ ফার্মেসিতে ফ্রিজ নেই। সংরক্ষনের অভাবে অনেক ওষুধের গুনগত মান নষ্ট হয়ে যায়। ড্রাগ লাইসেন্স অন্যতম শর্ত হচ্ছে, ফার্মিসিতে একজন ডিগ্রী ধারী চিকিৎসক কে দিনের বিভিন্ন সময়ে বসতে হবে। এই শর্ত অধিকাংশ দোকানে মানা হচ্ছে না। ডাক্তার বসেন এমন সাইনবোর্ড লাগানো হচ্ছে দোকানের সামনে। দোকানদাররা নিজে ডাক্তার সেজে বসে থাকেন। কিছু অসাধু ড্রাগ ব্যবসায়ী অঘোষিত ওষুধ কোম্পানির নিম্নমানের ওষুধ ক্রয় করে থাকেন। এসব ওষুধ ক্রেতাদের নিকট বিক্রি করে থাকে। এসব অভিযোগ দির্ঘদিনের । সংশ্লিষ্টরা এদিকে নজর দিচ্ছেন না।