শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাণীশংকৈলে মিথ্যা মামলায় হয়রাণীর শিকার মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

রাণীশংকৈল,(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগঁওয়ের রাণীশংকৈল মহলবাড়ি গ্রামে মিথ্যা মামলায় মুক্তিযোদ্ধা পারিবার হয়রাণীর শিকার। ইতিমধ্যে দ্বন্দের ঝাঁচ আদালত পর্যমত্ম গড়িয়েছে। নিজ স্বার্থ হাসিলের জন্য প্রবাসি করিমের সহ-র্ধমিনী মনোয়ারা খাতুন’র ষড়যন্ত্র কুপ্ররোচনায় মেয়ে ফারজানা আক্তার বাদী হয়ে অবৈধ জনতায় দলবদ্ধ হয়ে বাড়িতে হামলা, চুরি, হত্যার চেষ্টাসহ নানা অভিযোগ এনে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সের এ্যাম্বুলেন্স চালক মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, বাড়ির তিন জামাইসহ ৯ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ঘটনার সাথে অভিযোগের সিংহভাগ মিল নেই। বাদিনীর মায়ের আপত্তিকর চালচলনকে কেন্দ্র করে বাড়ির বাইরে কথা বলাবলির এক পর্যায়ে বাক বিতন্ডা ধাক্কাধাক্কি হয়। সত্যকে ধামাচাপা দিয়ে ঘটনাকে অন্যখাতে প্রবাহিত করার জন্য ভাসুরসহ বাড়ির জামাইদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার আশ্রয় নেয় মনোয়ারা বেগম। এলাকায় কোন তদন্ত ছাড়াই পুলিশ ঘটনার সত্যতা যাচাই না করে বাদিনীর বাড়িতে দীর্ঘ সময় কাটিয়ে চলে যায়। নাম প্রকাশে প্রতিবেশিরা অনিচ্ছুক। এক প্রতি বেশি বলে আ্যাই বঝি না,পুলিশ আঙ্গো না জিগায় হেতির বারিত কা….

আসামী পক্ষ অভিযোগ করে বলেন, থানা পুলিশের এস আই শাহ আলম মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বাদি পক্ষকে ইন্ধন যোগাচ্ছে। মামলার অভিযোগের সাথে জমিজমার কোন সম্পর্ক না থাকলেও পরিবারের সদস্যর মতো সে আমাদের নির্মান কাজে বাধা দিয়ে হয়রান করছে।  এব্যাপারে এস আই শাহ আলম বলেন, এক অংশিদার বিদেশে আছে, সে না আসা পর্যমত্ম উক্ত সম্পত্তিতে কোন নির্মান হবে না। ঘটনার সাথে জমিজমার কোন সম্পর্ক না থাকলেও এস আই শাহ আলম কাজে বাধা দিয়ে অনেক ক্ষতির মুখোমুখি করেছে বলে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার জানায়।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email