বুধবার ১৭ অগাস্ট ২০২২ ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রপতির সাথে ইউএনডব্লিউটিও’র সেক্রেটারি জেনারেলের সাক্ষাৎ

জাতিসংঘ ওয়ার্ল্ড ট্যুরিজম অর্গানাইজেশন (ইউএনডব্লিউটিও) বাংলাদেশে পর্যটনের উন্নয়নের জন্য সহায়তা প্রদানে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। রাষ্ট্রপতির প্রেস সেক্রেটারি জয়নাল আবেদীন জানান, ঢাকায় সফররত ইউএনডব্লিউটিও’র সেক্রেটারি জেনারেল তালেব রাইফাই আজ মঙ্গলবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ কথা বলেন। এ সময় পর্যটন ও বেসামরিক বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন সচিব খুরশিদ আলম চৌধুরী, এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল বিষয়ক প্রোগ্রামের পরিচালক জিং জু এবং রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠকে রাষ্ট্রপতি বলেন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য পর্যটন একটি গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর। সরকার ওই সেক্টরের উন্নয়নের জন্য কাঠামোগত উন্নয়নসহ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। বৈঠকে রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশের সমুদ্র সৈকতকে বিশ্বের সর্ববৃহৎ সমুদ্র সৈকত বলে উল্লেখ করে বলেন, সারা বিশ্বের পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে বাংলাদেশে অনেক সেক্টর রয়েছে।
রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশে বৌদ্ধ সংস্কৃতির অনেক দিক রয়েছে। যা বিদেশী পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে। উন্নয়ন টেকসই এবং দক্ষিণ এশিয়ায় বৌদ্ধ ঐতিহ্যের ওপর আন্তর্জাতিক সম্মেলন দেশের পর্যটন শিল্পের উন্নয়নের অনেক ভূমিকা রাখতে পারে।
প্রতিত্তোরে তালেব রাইফাই বলেন, সম্মেলন বাংলাদেশে পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে গুররুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ইউএনডব্লিউটিও সেক্রেটারি জেনারেল পর্যটন শিল্পকে একটি ক্লিন শিল্প হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, এই শিল্প পরিবেশের ওপর কোনো বিরূপ প্রভাব ফেলে না, বরং অনেক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করে। তিনি বাংলাদেশে বিদেশী পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণের পর্যটন সংক্রান্ত সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির ওপরও গুরুত্ব আরোপ করেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email