শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪ ২৯শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রেলওয়ের আন্ত:নগর ট্রেনের সিডিউল ভেঙ্গে পড়েছে-সর্বো’’চ বিলম্ব ১৪ ঘন্টা

মোঃ আব্দুললাহ আল মামুন,পার্বতীপুর(দিনাজপুর)থেকেঃ অবরোধের কারনে উত্তরাঞ্চল থেকে ঢাকা ,রাজশাহী ও খুলনাসহ বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী পশ্চিম রেলের ৯ টি আন্ত:নগর ট্রেন চলাচলের সময় সূচী ভেঙ্গে পড়েছে। সর্বো’’চ ১৪ ঘন্টা বিলম্বে চলাচল করছে আন্ত:নগর একতা ট্রেনটি। ফলে দিনের ট্রেন রাতে এবং রাতের ট্রেন দিনে চলাচল করছে। গোলক ধাঁধায় পড়েছেন ট্রেন যাত্রীরা। অবরোধের কারনে ট্রেনের ট্রেনের গতি কমিয়ে দেওয়ায় এবং ট্রেনে যাত্রীদের উপচেপড়া ভীড়ের কারনে উঠানামায় দেরী হওয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। রেলওয়ে সূত্রমতে, উত্তরাঞ্চলের নীলফামারী, দিনাজপুর ও ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী আন্ত:নগর নীলসাগর, একতা ও দ্রুতযান, লালমনির হাট ও রংপুর থেকে ঢাকা পথে চলাচলকারী আন্ত:নগর লালমনি এঙপ্রেস ও রংপুর এঙপ্রেস চলাচল করে। এছাড়াও খুলনা অভিমুখে সীমান্ত ও রূপসা এবং রাজশাহী পথে বরেন্দ্র ও তিতুমীর এবং বগুড়া পথে দোলন চাঁপা ট্রেন চলাচল করে। সর্ব’’চ ১৪ ঘন্টা বিলম্বে শুক্রবারের রাত ১০টার ট্রেনটি ছেড়ে গেছে গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায়। দ্রুতযান টেনটি ঢাকা থেকে পার্বতীপুর স্টেশনে ভোর সাড়ে ৪টায় পৌছার কথা থাকলেও পৌছেছে বিকেল সোয়া ৪টায়। নীলসাগর ট্রেনটি ঢাকা অভিমুখে ৬ ঘন্টা বিলম্বে পার্বতীপুর ছেড়েছে শনিবার সকাল ৬টায়। সীমান্ত ট্রেনটি ৪ ঘন্টা বিলম্বে খুলনা পথে ছেড়ে গেছে রাত ১২টা ১০ মিনিটে। একই অবস্থা রংপুর এঙপ্রেস, লালমনি এঙপ্রেস, ররেন্দ্র, সীমান্ত, দোলন চাঁপা, রূপসা আন্ত:নগর ট্রেনে। পার্বতীপুর স্টেশনে অপেক্ষারত বদরগঞ্জ উপজেলা থেকে আসা ট্রেন যাত্রী আব্দুস সালাম জানান, তিনি দ্রুতযান ট্রেনে ঢাকা যাওয়ার জন্য পার্বতীপুর এসেছি। দ্রুতযান ট্রেনটি ১০ ঘন্টা বিলম্বের কারনে পরিবার পরিজন নিয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। পার্বতীপুর স্টেশন মাষ্টার জিয়াদুল আহসান বলেন, স্টেশনে অতিরিক্ত যাত্রীর চাপ সামলানো কঠিন হয়ে পড়েছে। দেখা দিয়েছে আসন সংকোট। বাধ্য হয়ে আসন বিহীন টিকেটও দেওয়া হ’’’ছ কাউন্টার থেকে। পার্বতীপুর লোকো ইনচার্জ আঃ মতিন বলেন, নাশকতার আশংকায় রেলওয়ের লালমনির হাট নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী ট্রেনের গতি কমিয়ে রাতের বেলায় প্রতি ঘন্টায় সর্বো’’চ ৪৬ কিলোমিটার করা হয়েছে। একারনেও নির্দ্ধারিত সময় সূচি অনুযায়ী ট্রেন চালানো সম্ভব হচ্ছেনা। পার্বতীপুর রেল থানা ওসি একেএম লুৎফর রহমান বলেন, নাশকতা মোকাবেলায় ট্রেন চলাচলে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

Spread the love