সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শহরের বালুবাড়ী মেধ্যাপাড়ায় প্রতিমা ভাংচুর

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর শহরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে উত্তর বালুবাড়ী মেধ্যাপাড়া এলাকায় একটি মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুর করেছে দৃর্বৃত্তরা। গত বুধবার দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে ভাংচুরের এ ঘটনা ঘটে।

দিনাজপুর শহরের উত্তর বালুবাড়ী মেধ্যাপাড়া এলাকার মৃত কিরণ চন্দ্র রায়ের ছেলে পূর্ণ চন্দ্র রায় (৪০) জানান, শহরের পাশে উত্তর বালুবাড়ী মেধ্যাপাড়া এলাকায় স্থানীয় ভূমি অফিস হতে শেখপুরা মৌজার খতিয়াননং১/১, জেএল নং-৯৩ এর ০.২৫ শতক জমি (যার স্মারক নং-ভিপি-২১০৪, তারিখ ১৮-০৫-১৪) নিজ প্রাপ্ত হই। জমিটি লিজ নেয়ার পর হতে কতিপয় দুর্বত্ত আমার নিকট হতে জমিটি জোরপূর্বক জবর-দখলের জন্য আমার সাথে শত্রুতা করে আসছিল। তারই সূত্রধরে বালুবাড়ী এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের ছেলে আসলাম হোসেন (৩৫), মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে ছাদেকুল ইসলাম (৩৭), আব্দুল হামিদের ছেলে আব্দুল হালিম (৩৭) ও মৃত ইসমাঈলের ছেলে মোঃ বাবু চৌধুরীসহ অজ্ঞাত আরো ৭/৮ জন আমার লিজকৃত জমিতে চাষাবাদ করতে বাধা এবং আমাকে বিভিন্ন প্রকার হুমকি-ধমকি পদান করে আসছিল। এ বিষয়ে আমি কোতয়ালী থানায় একটি জিডি করলে তদন্ত কর্মকর্তা উপরোক্ত ১ হতে ৩ নং আসামীদের নামে বিজ্ঞ আদালতে প্রশিকিউশন নং-৭৪, তারিখ-০৭-০৭-১৪ ইং ধারা ৫০৬ (২) দন্ড বিধি দাখিল করেন। যা বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন। এরই এক পর্যায়ে গত ০৯-১২-১৪ তারিখ সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টায় উক্ত আসামীরা তাদের সহযোগিদের নিয়ে সংঘবদ্ধ হয়ে লাঠি-সোটা নিয়ে নালিশী সম্পত্তিতে অনধিকার প্রবেশ করে আমাকে ও আমার নিযুক্ত ওই জমিতে কর্মরত কামলাদের বাধা দেয়। এ সময় আমি তাদের এসব কর্মকান্ডের মৌখিক প্রতিবাদ করলে তারা আমাকে মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। এ সময় আমার চিৎকারে আমার স্ত্রী, ছেলে ও মাসহ অন্যান্যরা ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসলে উল্যেখিত আসামীরা আমাকে মেরে ফেলা ও জমি দখল করে নিয়ে যাওয়াসহ বিভিন্ন প্রকার হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়। তারা চলে যাওয়ার সময় বাড়ী সংলগ্ন শ্যামা মন্দিরে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে চলে যায়।

তারই ধারাবাহিকতায় উল্যেখিত দুর্বূত্তরা গত বুধবার রাতের কোন এক সময় আমার বাড়ী সংলগ্ন শ্যামা মন্দিরের প্রতিমা ও নির্মানাধীন মন্দিরের দেয়াল ভাংচুর করে।

Spread the love