শনিবার ২ মার্চ ২০২৪ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই ক্ষুধা দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে-এমপি গোপাল।

ডি, রায় বাবুল, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকেঃ-দিনাজপুর-১ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জনশীল গোপাল বলেছেন আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে যাচ্ছে। আজকে বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংম্পূর্নতায় অগ্রগতি লাভ করেছে। দেশের মানুষকে আজ না খেয়ে মরতে হয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনা যা বলেন তিনি তাই করেন,তার সরকারের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির ফলে আজ ১০ টাকা কেজি দরে মানুষ চাল ক্রয় করতে পারছেন। ১০ টাকা কেজি দরে চাল পেলে হত দরিদ্র মানুষ তাদের আয়ের বাকী অংশ পারিবারিক অন্যান্য চাহিদা পূরন করতে পারবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে এবং তার সুদক্ষ পরিচালনায় দেশে হত দরিদ্র মানুষের সংখ্যা অনেকাংশে কমে আসছে এবং হত দরিদ্র মানুষের দূর্ভোগও কমেছে। তাই আগামী দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠিত হবেই হবে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বীরগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবং উপজেলা সমাজ সেবা ও যুবউন্নয়ন অধিদপ্তরের সহযোগীতায় “বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় নির্মিত সেলাই প্রশিক্ষন কেন্দ্রের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন গ্রামে-গঞ্জে অনেক মানুষ হত দরিদ্র এবং স্বল্প এবং নি¤œ আয়ের। এই হত দরিদ্র মানুষদের মধ্যে নারীদেরও সংখ্যা অনেক। হতদরিদ্র ও স্বল্প আয়ের মানুষদের উন্নয়নে সরকার বিশেষ এলাকার জন্য উন্নয়ন সহায়তা কর্মসূচীর পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন। সমাজের অবহেলিত হতদরিদ্র অসচ্ছল মানুষজন যেন বিভিন্ন প্রশিক্ষনের মাধ্যমে প্রশিক্ষন গ্রহন করে স্বচ্ছল অবস্থায় ফিরে জীবন জিবীকা নির্বাহ করতে পারেন। তার জন্য শেখহাসিনার সরকার এই উন্নয়ন কর্মসূচী গ্রহন করেছেন। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আলম হোসেন-এর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনর্চাজ আক্কাস আহম্মেদ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোঃ মতিয়ার রহমান, উপজেলা যুবউন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ রাজিউর রহমান, উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ফিরোজ হাসান, উপজেলা আওয়ামীলীগের (ভারপ্রাপ্ত) সাধারন সম্পাদক নুর ইসলাম নুর,যুগ্মসম্পাদক শামীম ফিরোজ আলম শামীম,সাংগঠনিক সম্পাদক গোপাল দেব শর্মা, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোঃইয়াছিন আলী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন বাবুল,সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম রফিক, পল্লীবিদ্যুৎ ডিজিএম মমিনুর রহমান বিশ্বাস প্রমূখ। আলোচনা সভাশেষে প্রধান অতিথি মনোরঞ্জন শীল গোপাল সমাজ কল্যান পরিষদের বিশেষ অনুদানের ৪৩ জনরে মধ্যে ৮৬ হাজার টাকা,সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের ৫ জন সদস্যকে ৯০ হাজার টাকা এবং ২ জন সাংস্কৃতিক সেবীকে ২৪ হাজার করে ৪৮ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন। একই সময় তিনি যুবউন্নয়ন অধিদপ্তর কর্তৃক  প্রশিক্ষন প্রাপ্ত ১৭ জন সদস্যদের মাঝে ৫ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং ১২ জন সদস্যকে বায়োগ্যাস এর জন্য ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকার ঋণের চেক বিতরন করেন।

Spread the love