সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সকলকে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে নিজেদের যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে হবে-হুইপ ইকবালুর রহিম

Iqbalদিনাজপুর প্রতিনিধি : জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, বিশ্বায়নের এই যুগে টিকে থাকতে হলে মেধা ও যোগ্যতার কোন বিকল্প নেই। আর এ জন্য সকলকে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে নিজেদের যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, প্রতিযোগিতামুলক এই বিশ্বে টিকে থাকার জন্য বর্তমান সরকার এই দেশের নতুন প্রজন্মকে তথ্য ও প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বমানের গড়ে তুলতে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন করেছে।

হুইপ ইকবালুর রহিম গতকাল বৃহস্পতিবার দিনাজপুর সরকারী  মহিলা কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, আমাদের সরকার ইতিমধ্যে জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করেছে। দেশ ও জনগনের উন্নয়ন মেধা ও মনন বিকাশের প্রয়োজনে যে কোন পদক্ষেপ গ্রহন করতে আমরা প্রস্ত্ততি নিয়েছি। আমরা শিক্ষায় আধুনিক ও  বিজ্ঞান ভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রমকে সম্পৃক্ত করে দেশের শিক্ষার পরিবেশকে উন্নত করতে চাই। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পাঠ্য পুস্তকের কারণে প্রাথমিক শিক্ষার প্রথম স্তরেই অনেক শিশুই বিদ্যালয়ে না গিয়ে ঝড়ে পড়তো। আবার অনেক দরিদ্র পরিবারের সন্তানেরা পঞ্চম শ্রেণী পাশ করার পর ৬ষ্ঠ শ্রেণীর বই ক্রয় করতে না পেরে বিদ্যালয়ে যাওয়া বন্ধ হয়ে যেত। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকার বিপুল পরিমান অর্থ ব্যয় করে প্রথম থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন বই বছরের শুরুতেই প্রত্যেক শিক্ষার্থীর হাতে বিনামুল্যে পৌছে দেয়ার ফলে শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়া বন্ধ হওয়াসহ শিক্ষার মান উন্নয়ন ঘটেছে।

দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আনজুমান আখতার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযু&&ক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মোঃ রুহুল আমিন এবং দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ আলাউদ্দীন মিয়া। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন  দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ ড. সৈয়দ মোহাম্মদ হোসেন, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোঃ লুৎফর রহমান। স্বাগত ব্ক্তব্য রাখেন বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আহবায়ক মোঃ মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সমাজ কর্ম বিভাগের শামস্ পারভীন রুমি। ব্যবস্থাপনায় ছিলেন গণিত বিভাগের প্রভাষক একেএম রাশেদুল ইসলাম মানিক ও বাংলা বিভাগের প্রভাষক মোঃ জহিরুল ইসলাম।