বৃহস্পতিবার ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৬শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সব ধরনের যক্ষ্মাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে চায় স্বাস্থ্য বিভাগ

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ

গতকাল বুধবার দিনাজপুরে অনুষ্ঠিত এক গোল টেবিল বৈঠকে সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মউদুদ হোসেন বলেছেন, যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে আমাদের অনেক সফলতা আছে। কিন্তু যতক্ষণ পর্যন্ত এই রোগ শতভাগ নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে না ততক্ষণ আমাদেরকে সম্মিলিত ভাবে কাজ করে যেতে হবে।

বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি, সাস্থ্য অধিদপ্তর, সাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য বিভাগ-দিনাজপুর ও ব্র্যাকের যৌথ উদ্যোগে গতকাল বুধবার ‘ যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমঃ সর্বসত্মরের অংশ গ্রহণ ’ শীর্ষক এই গোল টেবিল বৈঠক জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষ অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মউদুদ হোসেন। তিনি সভাপতির বক্তব্যে সাংবাদিক, সুশীল সমাজ,সাধারন জনগোষ্ঠীসহ সর্বস্তরের জনগণকে যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে আসার আহবান জানান। তিনি বলেন, যক্ষ্মা হলে রক্ষা নাই একথা অনেক আগেই মিথ্যা হয়ে গেছে। এখন সবধরনের যক্ষ্মা রোগের চিকিৎসা বাংলাদেশে বিনা মূল্যে করা হচ্ছে। এই রোগের চিকিৎসার জন্য সরকার পর্যাপ্ত বাজেট রেখেছেন। তবে সবাইকে এ বিষয়ে সচেতনতার পরিচয় দিতে হবে। সর্বসত্মরের মানুষের স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহনের মাধ্যমে যক্ষ্মা নির্মুলের চেষটা চালাতে হবে।

গোল টেবিল বৈঠকে সম্মানিত অতিথি ছিলেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি চিত্ত ঘোষ। রিসোর্স পারসন হিসেবে আলোচনা করেন, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ পরিচালক ডাঃ মোঃ দিদারুল ইসলাম, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ নুরুল হুদা, জেলা বিএমএ সাধারন সম্পাদক ডাঃ গোপীনাথ বসাক, দিনাজপুর সদর হাসপাতালের শিশু বিষয়ক কন্সালট্যান্ট ডাঃ মোঃ আব্দুল ওয়াহেদ, UHXFPO ডাঃ মোঃ আমির আলী এবং দিনাজপুর বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের জুনিয়র কন্সালট্যান্ট ডাঃ মাসতুরা বেগম। বৈঠকের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা ব্র্যাক প্রতিনিধি মোঃ মহসীন আলী। বিষয়ের ওপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্র্যাক অ্যাডভোকেসী ইউনিট ম্যানেজার প্রীতি রঞ্জন দত্ত। মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন নাটাব-দিনাজপুর জেলা কমিটির সভাপতি তাহেরউদ্দীন আহম্মেদ, দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আজহারুল আজাদ জুয়েল, জেলা সাংবাদিক সমিতির সাধারন সম্পাদক আহসানুল আলম সাথী, বিডিনিউজ প্রতিনিধি মোর্শেদুর রহমান, দৈনিক উত্তর বঙ্গের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কাশী কুমার দাস, সাংবাদিক আকরাম হোসাইন বাবলু প্রমুখ। এছাড়াও যক্ষ্মা রোগ হতে আরোগ্য লাভ করেছেন এমন দুজন রোগী শাঁখারীপট্টির প্রদীপ কুমার দাস ও ঘাসিপাড়ার রীনা বেগম বক্তব্য রাখেন। বৈঠক সঞ্চালন করেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল।