সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাইকেলে চড়ে প্রচারাভিযান এখন দিনাজপুরে ক্লাবফুট, ঠোঁট ও তালুকাটা জন্মগত সমস্যা বিষয়ে জনসচেতনতা কর্মসূচি

শরিফুল ইসলাম হিরণ, স্টাফ রিপোর্টার: ‘গড়ে তুলি আগামী’ সেস্নাগানের প্রত্যয়ে জন্মগত ক্লাবফুট এবং ঠোঁট ও তালুকাটা সমস্যা নিয়ে জনসচেতনতার জন্য লায়ন মোখলেছুর রহমান ফাউন্ডেশন (এলএমআরএফ) সমগ্র বাংলাদেশে সাইকেলে চড়ে প্রচারাভিযান পরিচালনা করছে। জন্মগত ক্লাবফুট, ঠোঁট ও তালুকাটা চিকিৎসা না করালে প্রতিটি শিশুর জীবন হতে পারে শারীরিক ও সামাজিকভাবে বিপন্ন। আর এ ধরনের সমস্যা নিয়ে আমাদের দেশে রয়েছে নানা ধরনের কুসংস্কার। সমস্যাগুলোর উত্তরণে সকলের আমত্মরিক অংশগ্রহণ প্রয়োজন। অধিকাংশ অভিভাবকই এ সকল জন্মগত সমস্যা নিয়ে অবগত নয়, ফলে সমত্মানের সুচিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সঠিক তথ্য না থাকায়, চিকিৎসার আওতার বাইরেই থেকে যাচ্ছে অধিকাংশ আক্রান্ত শিশু।

 

এলএমআরএফ বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়নমূলক ও দাতব্য সংস্থা। সুবিধাবঞ্চিত দরিদ্র রোগী, যারা জন্মগতভাবে ঠোঁট ও তালুকাটা এবং মুগুর পা বা ক্লাবফুট আক্রামত্ম তাদের বিনামূল্যে উন্নতমানের ও আধুনিক চিকিৎসা সেবা দেওয়াই এই সংস্থার প্রধান লক্ষ্য। শুরু থেকে অদ্যাবধি পর্যমত্ম চট্টগ্রাম ও চট্টগ্রাম বিভাগের জেলাসমূহে প্রায় ৫০০০ জন ঠোঁট ও তালুকাটা রোগীকে সফলভাবে অপারেশন এবং ২৫০০ এর অধিক রোগীর মুগুর পা এর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে।

 

শিশুদের কল্যাণে কাজ করা ও এ সংক্রামত্ম বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে দেশব্যাপী এ সাইকেল প্রচারাভিযানে অংশ নিয়েছেন তরম্নণ সাইক্লিস্ট শরিফুল ইসলাম হিরণ ও বাহারুলcycle  1 BP ইসলাম। এ শুভ উদ্যোগকে পরিকল্পনার মাঝে সীমাবদ্ধ না রেখে, বাসত্মবায়নের লক্ষে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হিসেবে এলএমআরএফ ঠোঁট ও তালুকাটা এবং মুগুর পা আক্রামত্ম শিশুদের বিনামূল্যে সুচিকিৎসার সুযোগকে ছড়িয়ে দিতে এবং এ সংক্রামত্ম সচেতনতা বৃদ্ধিতে দেশব্যাপী সাইকেল চড়ে ব্যতিক্রমী এ প্রচারাভিযান কর্মসূচী বাসত্মবায়ন করছে। আর এই জনসচেতনতামূলক প্রচারাভিযানকে সফল করতে আর্থিক সহযোগীতায় এগিয়ে এসেছে পেডরোলো এন.কে. লিমিটেড, উত্তরা মোটরস্ লিমিটেড এবং প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড।

 

গত ৬ ডিসেম্বর’১৪ চট্টগ্রাম থেকে আনুষ্ঠিকভাবে এ শুভ উদ্যোগের যাত্রার সূচনা হয়, এবং পর্যায়ক্রমে ৩০ তম জেলা শেষ করেন।

বাংলাদেশের সকল জেলায় এ সাইক্লিস্টদ্বয় তাদের প্রচারাভিযান পরিচালনা করবে। এরই ধারাবাহিকতায় সাইক্লিষ্টদ্বয় ১২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দিনাজপুরে জেলায় এ সকল বিষয়ে তথ্য ও সচেতনতামূলক উপকরণ বিতরনও উপস্থিত জনতার সাথে জনসংযোগ করেন। এ সময় উপস্থিত জনতা তাদের এই কল্যাণমূলক কাজের জন্য সাধুবাদ জানান। এছাড়াও সাইক্লিষ্টদ্বয় এ বিষয়ে অবহিত করতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দিনাজপুর মোঃ আবু রায়হান মিঞা, এডিসি ( শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ তৌফিক ইসলাম, জেলা প্রশাসনের নেজারত ডিপুটি কালেক্টরেট (এনডিসি) আবুজার গিফারি, সহকারি কমিশনার পুলক কুমার মন্ডল, সহকারি কমিশনার মাশফাকুর রহমান, সহকারি কমিশনার জোবায়ের রাশেদ, ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় করেন। সবশেষে তারা জয়পুরহাট এর উদ্দেশ্যে তাদের সাইকেল প্রচারাভিযান যাত্রা শুরু করেন।

Spread the love