মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৩ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সব ব্যবস্থা নিবে সরকার : প্রধানমন্ত্রী

 

Pm01বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে যশোরের অভয়নগর উপজেলার মালোপাড়ার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরির্দশন শেষে এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,  সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় যতটা দরকার ততটায় কঠোর হবে সরকার।

মালোপাড়ার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরির্দশন শেষে ক্ষতিগ্রস্ত ৫১ পরিবারের প্রত্যেককে ২০ হাজার থেকে এক লাখ টাকার চেক প্রদান করেন তিনি।
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনি মুখে বলেন যে কেউ ভোট দিতে যায়নি। তাহলে ভোট দিতে যাওয়ার অপরাধে এই জুলুম-নির্যাতন কেন?’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপির কাজ খুনিদের পুরষ্কৃত করা। যুদ্ধাপরাধীদের হাতে বিএনপির নেত্রী আমাদের পতাকা তুলে দিয়েছিল। বিএনপির নেত্রী আন্দোলনের নামে দেশবাসীকে ডাক দিয়েছিল। কিন্তু দেশবাসী তার ডাকে সাড়া দেয়নি। তিনি আন্দোলনের নামে একটি কাজ করতে পেরেছে, তাহলো গাড়িতে আগুন দিয়েছে। আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, জামায়াত পাকিস্তানের স্বাধীনতার সময়ও সমর্থন করেনি, আবার বাংলাদেশের স্বাধীনতাকেও সমর্থন করেনি। এ দলটি গণহত্যার কারণে পাকিস্তানেও দণ্ডিত হয়েছিল। তিনি বলেন, ১১ হাজার যুদ্ধাপরাধী যারা কারাগারে বন্দি ছিল জিয়াউর রহমান তাদের ছেড়ে দিয়েছিল। ছেড়ে দিয়ে তাদের বিভিন্ন পদে মন্ত্রী-এমপি বানিয়েছিল। যে খুনিরা আমার বাবা, মা, ভাই-বোনকে হত্যা করেছে। সেই খুনিদের জিয়াউর রহমান বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিল।

বাংলাদেশের মানুষ সংঘাত চায়না উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ শান্তি চায়। তারা হানাহানি চায়না। জাতির জনকের এ দেশ এগিয়ে যাবেই।