শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সুন্দরগঞ্জে টয়লেট থেকে এক শিশুর লাশ উদ্ধার

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে বাড়ির টয়লেট থেকে নূর-হাওয়া নামে চার মাস বয়সী এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শিশুটির মা তানজি বেগমকে আটক করা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার ধুমাইটারী তেঁতুলতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সন্ধ্যা ৬টার দিকে ধুমাইটারী তেঁতুলতলা এলাকার নুরুল ইসলামের বাড়ির টয়লেট থেকে শিশু নূর-হাওয়ার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানান, তানজি বেগম ধুমাইটারী তেঁতুলতলা এলাকার নুরুল ইসলামের তৃতীয় স্ত্রী। নূর-হাওয়া তাদের একমাত্র সন্তান। নুরুল ইসলামের প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীর কোনো সন্তান নেই। তাই তিনি কয়েক বছর আগে তানজি বেগমকে বিয়ে করেন। নুরুল ইসলামের প্ররোচনায় তানজি বেগম প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রীকে ফাঁসাতে গিয়ে শনিবার রাতে নিজের সন্তানকে হত্যা করে লাশ টয়লেটে রেখে দেন। পরে শিশু নূর-হাওয়া নিখোঁজ বলে প্রচারণা চালান তানজি বেগম। রোববার সন্ধ্যায় টয়লেট থেকে শিশু নূর-হাওয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

সুন্দরগঞ্জ থানার এসআই শাহানাজ পারভীন জানান, শনিবার শিশু নূর-হাওয়া নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি পুলিশ জানতে পারে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ব্যাপক তল্লাশি চালানোর পর নুরুল ইসলামের বাড়ির টয়লেট থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

সুন্দরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তানজি বেগম সন্তানকে হত্যা করে লাশ টয়লেটে রেখে দেয়ার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email