শনিবার ২১ মে ২০২২ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সুন্দরবন ইউনিয়নে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত-২ হাসপাতালে ভর্তি

দিনাজপুর প্রতিনিধি: সুন্দরবন ইউনিয়নে আমন ধান কাটাকে কেন্দ্র করে বিরোধ পূর্ন জমিতে ধান কাটতে গেয়ে পিতা পুত্র সহ আহত হয়েছে ২ জন। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে,সদর উপজেলার ২ নং সুন্দরবন ইউনিয়নের সুন্দরবন গ্রামের দাগ নং ৬৬২৫/১৬২৮৬ মোট ৭৫ শতক জমি দীর্ঘ দিন থেকে মৃতঃ মহুর পন্ডিত এর পুত্র সামছুল হক পত্রিক সম্পত্তি হিসেবে ভাগের অংশ পেয়ে চাষ-বাস করে। বিগত জরিপ চলাকালীন সময় পার্শ্ব কালিকাপুর গ্রামের মৃতঃ ভবেশ্বর রায়ের পুত্রদ্বয় নাটারু ও নরেশ জানতে পারেন, জমি গুলো তাদের বাপ দাদার নামে রেকর্ড ভূক্ত রয়েছে। তারা তাদের কাগজ পত্র জমি ভোগ দখলকারী সামছুল হককে দেখালে জমি ছেড়ে দেয়নি। স্থানীয় পর্যায়ে চেষ্ঠা করে ব্যর্থ হয় নাটারু ও নরেশ ভাতৃদ্ধয়।

জমিতে আসতে না পেরে নাটারু ও নরেশ সুন্দরবন ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামকে দিয়ে তার আত্নীয় মোঃ রাজু আহম্মেদ,পিতাঃ আশরাফ আলী,গ্রাম ভাউলাগঞ্জ,থানাঃ দেবিগঞ্জ,জেলাঃ পঞ্চগড় মোছাঃ আফছানা ইয়াসমিন,স্বামীঃ রাজু আহম্মেদ,ঠিকানাঃ ঐ,সাজিণদা খাতুন শশি,ঠিকানাঃ ঐ, তাদের কাছে বিক্রি করে। তারা সকলে চাকুরীগত কারনে দেশের বাহিরে রয়েছেন। তাই জমি গুলো ১৯/০৮/১০ রফিকুল নিজে বর্গা নিয়ে জমি চাষ-বাস করতে থাকে। গত বর্ষা মৌসুমে আমন রোপন এর সময় রফিকুলকে জমিতে চারা রোপন করার সময় সামছুল বাধা প্রদান করে। তা সত্বেও রফিকুল জমিতে রোপা লাগায়। ধানের গাছের পরিচর্যা শেষে জমিতে ধান আংশিক অংশ পাকিলে গত ০৫/১১/১৩ ইং লোক জন নিয়ে রফিকুল ধান কাটতে গেলে, ধান কাটার শেষ পর্যায়ে সামছুল হক উপস্থিত হয়ে ধান নিয়ে যাওয়ার বাধার সৃষ্টি করে। এ সময় বাধা বিপক্তির এক পর্যায়ে রফিকুল (৪৬),পুত্র সুজন (২৩) কে সামসুলের পক্ষ থেকে আঘাত করলে সুজন মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়। তাদেরকে মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রফিকুলকে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং সুজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এলাকাবাসীর এক পক্ষ দাবী করেন সামছুলদের কাগজ-পত্র রয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email