বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সেতাবগঞ্জ থেকে ২৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ভারতে পাড়ি এক প্রতারক পরিবারের

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জ উপজেলার সেতাবগঞ্জ পৌরসভাধীন শহীদপাড়া মহল্লার বাসিন্দা হিসেবে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বসবাস করে অতঃপর একজন অটো ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১৯ লাখ ও প্রতিবেশীদের কাছ থেকে আনুমাকি ৬ লাখ টাকা নিয়ে রাতের আধারে ভারতে পাড়ী জমিয়েছে প্রতারক পরিবার চক্রটি।

বোচাগঞ্জ থানায় মামলা সুত্রে জানা গেছে, পাবনা জেলার সদরের গোপালপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত সুনিল দাসের পুত্র সমর কুমার দাস ওরফে অসিত (৫০) গত ১০ বছর পুর্বে আত্মীয়তার সুত্র ধরে স্ত্রী দুই কণ্যা সহ স্বপরিবারে সেতাবগঞ্জে বসবাস শুরু করে। উক্ত অসিত দাস তার নিজের ভায়রা সেতাবগঞ্জ বিদ্যুৎ সরবরাহ কেন্দ্রে মিটার রিডার বিশ্বনাথ চক্রবর্তীর সুত্র ধরেই প্রথমে সেতাবগঞ্জের বিশিষ্ট ধান চাউল ব্যবসায়ী আলহাজ্ব আলম খাঁনের ম্যানেজার হিসেবে চাকুরী করে সেখানে প্রায় ৫ বছর চাকুরীর পর সে সেতাবগঞ্জ বালাপুকুর এলাকায় বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ আনোয়ার হোসেনে মানিক এর অটো মিলে ম্যানাজার হিসেবে ৭ হাজার ৫শত টাকা বেতন চাকুরী নেয়। সেখানে সে দীর্ঘ ৪/৫ বছর ধরে চাকুরী করার পর হঠাৎ করে গত ১৮ ফেব্রুয়ারী সকালে মিল মালিক নগদ ২ লাখ ৬১ হাজার টাকা, আইএফ আইসি ব্যাংক, সেতাবগঞ্জ শাখার চেক নং – CAI-৪৫১৬২৫৯ তে ৪ লাখ টাকা, ইসলামী ব্যাংক, সেতাবগঞ্জ শাখার চেক নং- IBQ- ০১৩৩১৬৯ তে ১০ লাখ টাকা এবং জনতা ব্যাংক, সেতাবগঞ্জ শাখার চেক নং- CD- ৮৩১৯০৮৪ তে ৩ লাখা টাকা সর্বমোট ১৯ লাখ ৬১ হাজার টাকা  দিয়ে তাকে ব্যাংকে জমা দেওয়ার জন্য পাঠালে সে উক্ত টাকা ব্যাংকে জমা না দিয়ে স্বপরিবারের গা ঢাকা দেয়। অনেক খুজাখুঁজির এক পর্যায় জানা যায় উক্ত প্রতারক অসিত স্বপরিবারে ভারতে পালিয়ে যায়। এছাড়াও প্রতারক অসিত দাসের স্ত্রী শুক্লা দাস, তার দুই কন্যা পূজা দাস, মৌসুমী দাসের সহযোগিতায় বিভিন্ন কৌশলে সেতাবগঞ্জের শহীদপাড়া মহল্লার একাধিক নারী পুরুষের কাছ থেকে প্রায় ৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে গেছে । এব্যাপারে আনোয়ারা অটো রাইস মিলের স্বত্বাধিকারী মোঃ আনোয়ার হোসেন মানিক বাদী হয়ে প্রতরাক অসিত দাস, স্ত্রী শুক্লা দাস, দুই কন্যা মৌসুমী দাস, পূজা দাস ও তার স্ত্রীর বোন আন্না অধিকারী, জামাই সোহাগ সাহা ও সৌজন্য সরকার মনাকে আসামী করে বোচাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৬০১ তাং- ১৮-০২-২০১৪। ঘটনাটি এলাকায়  চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

 

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email