শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সৈয়দপুরে গমের বাম্পার ফলনে কৃষক খুশি

মো. জাকির হোসেন, সৈয়দপুর(নীলফামারী) প্রতিনিধি : সৈয়দপুরে গম কাটা মাড়াই শুরু হয়েছে৷ আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর সৈয়দপুরে কৃষকরা গমের বাম্পার ফলন ঘরে তুলছেন৷ ধান, পাট ও আলুর আবাদ করে ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এবারে গম চাষে ঝুঁকে পড়েছেন এখানকার কৃষকরা৷ শতাব্দি, প্রদীপ, বিজয়, প্রতিভা, বারী গম-২৬, ২৮ সহ বিভিন্ন জাতের উচ্চ ফলনশীল জাতের গমের আবাদ করেন উপজেলার কামারপুকুর, বাঙ্গালীপুর, কাশিরাম বেলপুকুর, খাতামধুপুর ও বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের কৃষকরা৷ ১শ ৫ দিন থেকে ১শ ২০ দিনের মধ্যে এ ফসল ঘরে তোলার সুযোগ থাকায় সৈয়দপুরের কৃষকগণ আবাদে আগ্রহী হয়ে উঠেছে৷ যেখানে প্রতিমণ বোরোর উত্পাদন ব্যয় বর্তমানে ৫শ ৫০ টাকা, সেখানে গমের মণ প্রতি উত্পাদন ব্যয় প্রায় ৫শ টাকা৷ অথচ বোরো ধানের বাজার দর ৫শ থেকে ৬শ ৫০ টাকা৷ আর গমের মন ৮শ টাকা৷ পাশাপাশি বোরোর চেয়ে গম প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ কীটপতঙ্গের আক্রমণ প্রতিরোধক্ষম অনেক বেশি৷ বোরোর আবাদে লোকসানের ঝুঁকি রয়েছে যা গমের আবাদে নেই৷ ভাল মুনাফার আশায় এখানকার কৃষকরা ক্রমে গমের আবাদে আগ্রহী হয়ে উঠছে৷ ইতোমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গম কাটা-মাড়াই শুরু হয়েছে৷ এতে একর প্রতি ৩৬ থেকে ৪০ মণ গম ঘরে তুলতে পারছেন কৃষকরা৷

সৈয়দপুর উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ হোমায়রা মন্ডল জানান, উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ২৫০ হেক্টর জমিতে গম আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নেয়া হলেও চাষাবাদ হয়েছে ২৮০ হেক্টরে৷ আর এজন্য উত্পাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৭৭৫ মেট্রিক টন গম৷ তিনি বলেন, বিপণন সুবিধা, কৃষি উপকরণের সহজলভ্যতা ও ফড়িয়াদের দৌরাত্ম কম হলে দিনদিন কৃষকরা গম চাষের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবে৷

Spread the love