মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৈয়দপুরে হাত বাড়ালেই মাদক

মো. জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি : নীলফামারী সৈয়দপুর উপজেলায় মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের কোন কার্যক্রম না থাকায় মাদকের বিস্তার ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে৷ হাত বাড়াইলে মিলছে মাদক৷ এই শহরে প্রায় ৩০টি স্পটে অবাধে বিক্রয় হচ্ছে মাদকদ্রব্য৷ ভাসমান স্পটের সংখ্যা প্রায় শতাধিক৷ সৈয়দপুর উপজেলার গাঁজা, ইয়াবা, ফেনসিডিল, হিরোইন, বাংলামদ সহ নেশা জাতীয় দ্রব্য ব্যবহার করে আসক্ত হয়ে পড়েছে তরুণ সমাজ৷

কিশোর, তরুণ যুবক থেকে বৃদ্ধ বয়সী নারী-পুরুষ কেউ বাদ যাচ্ছে না৷ মাদকে ছড়াছড়ি হলেও প্রশাসন এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনেকটাই হিমসিম খাচ্ছে৷ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে এসব অবৈধ মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ৷ ফলে এসব এলাকার আইনশৃঙ্খলা, পারিবারিক কলহ খুনের ঘটনা বেড়েছে৷ স্কুল-কলেজের ছেলে-মেয়ে ও উঠতি বয়সের কিশোর-কিশোরীরা বেশি আসক্ত হয়ে পড়ছে৷ এ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন স্থানীয় সুশীল সমাজ৷ সৈয়দপুরে প্রবীণ রাজনৈতিক নেতা শমসের আলী বসুনিয়া বলেন, এক সময় ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকসেবন উচ্চবিত্তের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকলেও এখন মধ্যবিত্ত ও নিম্্নবিত্ত যুবকদের মধ্যেও মাদকের বিস্তার ঘটছে৷

সূত্র জানায়, এ কারণে ছেলে-মেয়েরা উঠতি বয়সের বাবার শাসন থেকে মুক্ত৷ ছেলে মেয়েরা সহজ সরল মাকে স্কুল কলেজের বেতন কিংবা পোশাক-প্রসাধনি ক্রয়ের কথা বলে টাকা নিয়ে নেশাখোর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় মেতে উঠে৷ পরে নিজের অজান্তেই মাদকের বিষাক্ত থাবায় নিজেকে সঁপে দেয়৷ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইসলামবাগ এলাকার এক শিক্ষক জানান, মাদকের ভয়াবহতায় ছেলে-মেয়েদের স্কুল-কলেজে পাঠাতেও ভয় হচ্ছে৷ সৈয়দপুর শহরকে মাদক মুক্ত করতে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সহ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন শহরবাসী৷

Spread the love