শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সৈয়দপুরে ২০ হাজার টাকায় নবজাতক বিক্রি ঠেকালো পুলিশ সদস্য আব্দুর রহিম

মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে দূর সম্পর্কিত ফুপাতো বোনের কাছে ২০ হাজার টাকায় নব ভুমিষ্ট ছেলে সন্তানকে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। পরে পুলিশ সেই নবজাতককে উদ্ধার করে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয়। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, শহরের নিচু কলোনি মহল্লার মোঃ নাদিমের স্ত্রী জোসনা বেগম (৩১) মঙ্গলবার সকালে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। পরে ২০ হাজার টাকায় নবজাতক কে বিক্রি করে দেন একই এলাকার লিমা আক্তারের কাছে।  
হাসপাতালের মূল গেটে নবজাতকের বাবার সাথে ক্রেতা লিমা আক্তারের চুক্তিপত্র সম্পাদন হতে দেখে লোকজন। চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর শেষে মহিলাটি নবজাতকের বাবার হাতে এক ব্যান্ডেল টাকা তুলে দেন। এতে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে।পরে এ ঘটনাটি চাউর হয়ে পড়লে সৈয়দপুর সদর পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা আব্দুর রহিম দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে ক্রেতা লিমা আকতারের কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। লিমা আকতার সৈয়দপুর শহরের নিচু কলোনি মহল্লার খায়রুল ইসলামের স্ত্রী। নবজাতকের মা জোসনা বেগম জানান, জামিলা খাতুন আমার দূর সম্পর্কীয় ফুপাতো বোন। তাঁর কোনো ছেলে সন্তান না থাকায় তাকে স্বেচ্ছায় দিয়েছি। তবে আমার চিকিৎসার খরচ বাবদ তিনি আমাদের ২০ হাজার টাকা দিয়েছেন। খবরটি মূহুর্তে শহরজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email