শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সৈয়দপুর বন্ধন শিল্পী গোষ্ঠীর লেখক ও সাংবাদিকদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

মো. জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি : শুক্রবার মিস্ত্রীপাড়া মোড়ে সৈয়দপুর বন্ধন শিল্পী গোষ্ঠী সৈয়দপুরের ৪ জন কৃতিসন্তানকে সংবর্ধিত করলো। অনুষ্ঠানটি ছিল ৪ জন কৃতিসন্তানের মধ্যে দুজন লেখক ও দুজন সাংবাদিক। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি তাহের আলী বসুনিয়া এবং সভা পরিচালনা করেন রিপোর্টার্স কাবের সহ-সভাপতি সাংবাদিক শাহজাহান আলী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক রইজউদ্দিন রকি, রহুল কুদ্দুস, কহিনূর বানু প্রমুখ। স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন, কৃষি খবরে কর্তৃক সম্মননা প্রাপ্ত সাংবাদিক এম আর মহসিন, সাহসী খবরে সম্মননা প্রাপ্ত সাংবাদিক আলমগীর হোসেন, একুশে বই মেলায় বই প্রকাশিত হওয়া জ্বীনের প্রেম বইটির লেখক ও সাংবাদিক ওয়াহেদ সরকার এবং কথা সাহিত্যিক গল্পগ্রন্থ আসূয়া বইয়ের লেখক কথা সাহিত্যিক ও সাংবাদিক আকমল সরকার রাজু।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আদর্শ স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুর রউফ, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দৈনিক মানববার্তার জেলা প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন হিরো, অনলাইন পত্রিকা সিসি নিউজ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, দৈনিক বায়ান্নর আলো ও দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার সাংবাদিক মো. জাকির হোসেন প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, সাংস্কৃতিক বিপ্লবের মাধ্যমে একটা সমাজকে যে পরিবর্তন করে দেয়া যায় এ কথা নিঃসন্দেহে বলা যেতে পারে। পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর বাঙালি কৃষ্টি-সংস্কৃতি ধ্বংসের পাঁয়তারাকে আমরা কীভাবে ঠেকিয়ে দিয়েছিলাম তার উদাহরণ টেনে বক্তারা বলেন, ষাটের দশকে একষট্টির দিকে সরকার রবীন্দ্র জয়ন্তী করতে দেবে না; কিন্তু আমরা সিদ্ধান্ত নিলাম করবো। এবং আমরা জনমত গড়ে তুলে এমন পর্যায় নিয়ে গেলাম, শাসকগোষ্ঠী বহু চেষ্টা করেও বানচাল করতে পারেনি। বক্তারা বলেন, তখনকার চরম রাজনৈতিক প্রতিকূলতাকে রাজনৈতিক আন্দোলনের পাশাপাশি রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তীর মাধ্যমে প্রতিক্রিয়াশীলদের মোকাবিলা করা হয়েছে। আজ আমাদের সংস্কৃতির একটি বড় অংশ হলো সাংবাদিক ও লেখক। বাংলা সংস্কৃতি প্রসারে আপনাদের কলম আরও শক্তিশালি করে সমাজ উন্নয়নে কাজ করার অহবান জানান এবং ৪ জন কৃতিসন্তানদের হাতে শুভেচ্ছা স্বারক তুলে দেন অনুষ্ঠানের অতিথিদৃন্দ।

Spread the love