রবিবার ২২ মে ২০২২ ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হরতালে পুলিশের ওয়াচার কনষ্টেবলকে মারধরের অভিযোগে বীরগঞ্জে জামায়াত নেতাকর্মীদের বিরম্নদ্ধে মামলা

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বীরগঞ্জে হরতালে দ্বিতীয় দিন পুলিশের ওয়াচার কনষ্টেবলকে মারধরের অভিযোগে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের বিরম্নদ্ধে মামলা।

থানা সূত্রে জানা যায়, সারাদেশে ১৮ দলীয় জোটের তিন দিনে হরতালে দ্বিতীয় দিন গত সোমবার বিকেলে বীরগঞ্জে উপজেলা জামায়াত-শিবির একটি মিছিল বের করে। মিছিল শেষে দলীয় কার্যালয়ের সামনের মহাসড়কে অনুষ্ঠিত সমাবেশে উপজেলা জামায়াতের আমীর ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব মাওঃ মোহাম্মদ হানিফ বক্তব্য প্রদান করেন। সেখানে উপস্থিত পুলিশের ওয়াচার কনষ্টেবল শেখ শাহ মোঃ নেওয়াজ বিষয়টি মোবাইল ফোনে উর্ধতন কর্মকর্তা অবহিত করে। এ সময় তার পাশে থাকা জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা তার উপর হামলা চালায়। এ বিষয়ে পুলিশের ওয়াচার কনষ্টেবল শেখ শাহ মোঃ নেওয়াজ বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উলেস্নখসহ অজ্ঞাত ৬০/৭০ জন জামায়াত- শিবির নেতাকর্মীদের বিরম্নদ্ধে বে-আইনি জনতায় দলবদ্ধ হয়ে সরকারী কর্মচারীকে মারপিট করে জখম করার অপরাধে বীরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নম্বর-২০। তারিখ-২৮.১০.১৩ইং।

এ ব্যাপারে পুলিশের ওয়াচার কনষ্টেবল শেখ শাহ মোঃ নেওয়াজ জানান, উপজেলা জামায়াতের আমীর ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব মাওঃ মোহাম্মদ হানিফ বিভিন্ন মামলার পলাতক আসামী। তাঁর উপস্থিতির বিষয়টি আমি উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানানোর সময় জামায়াত-শিবিরের সশস্ত্র কর্মীরা ছুটে এসে আমার উপর হামলা চালায়।

জামায়াতের বাইতুল মাল সম্পাদক কারী আজিজুল হক জানান, পুলিশের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমরা শামিত্মপূর্ণ ভাবে আমাদের কর্মসূচী পালন করেছি। কারো উপর হামলার বিষয় আমাদের জানা নেই। আমাদের নেতাকর্মীদের দ্বারা কারো উপর হামলা চালানোর ঘটনা ঘটেনি। এই মামলায় এখন পযমর্ত্ম কেউ গ্রেফতার হয়নি বলে তদমত্মকারী অফিসার এসআই আব্দুল মতিন জানান।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email