শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হাবিপ্রবিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

জিন্নাত হোসেন : ডাক টেলিযোগাযোগ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর ভিশন ২০২১ সালের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে শিক্ষু ও প্রযুক্তির বিকল্প নেই৷ তাই শিক্ষা ও তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে হবে৷ ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে দেশের প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্র“ত গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট ব্যবস্থা, বিশেষায়িত ল্যাব. ও ইনকিউবেশন সেন্টার অচিরেই প্রতিষ্ঠা করা হবে৷

৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিআইপি কনফারেন্স কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের সাথে এক মত বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন৷

তিনি আরও বলেন, শ্রম নির্ভর অর্থনীতিকে মেধা নির্ভর অর্থনীতি হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে আমাদের কাজ করতে হবে৷ উত্তরবঙ্গের স্বনামধন্য এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন৷ তিনি বলেন গাজীপুরে হাইটেক পার্কে কয়েক লক্ষ আই টি বিশেষজ্ঞের কাজ করার সুযোগ হবে৷ আমরা ইতোমধ্যে ৩৪ হাজার গ্র্যাজুয়েটেকে আইটি বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে৷ সারা দেশে ১২টি সফটওয়ার পার্ক স্থাপন করা হবে৷ উত্তরবঙ্গে রংপুরে প্রথমে সফটওয়ার পার্ক স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিবেশ দেখে মুগ্ধ হন৷ সার্চ ইঞ্জিন গুগলসহ অন্যান্য তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠানে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সুনামের সাথে কাজ করায় বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে তিনি ধন্যবাদ জানান৷

মত বিনিময় সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. র“হুল আমিন মাননীয় প্রতিমন্ত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও উন্নয়ন কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন৷ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো. আসাদুজ্জামান জেমি বক্তব্য রাখেন৷

মত বিনিময় সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এ টু আই প্রকল্পের জনপ্রেক্ষিত বিশেষজ্ঞ মো. নাইমুজ্জামান মুক্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ, শিক্ষার্থী ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন৷

 

Spread the love