শুক্রবার ৯ জুন ২০২৩ ২৬শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হোসেনি দালানে বোমা হামলায় নিহত ১, আহত শতাধিক

রাজধানীর পুরান ঢাকার হোসেনি দালানের সামনে কমপক্ষে তিনটি শক্তিশালী বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে সানজু (২৮) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক লোক। ঘটনাস্থলে পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল ও মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে এ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন গুরুতর আহতরা হলেন- রিনা খাতুন (৩৮), তার ভাই সানোয়ার হোসেন (৬৩), রনি (২৫), নুর হোসেন (৫৫), আয়েশা আক্তার (৫০), জামাল হোসেন (৫০) আইসিউতে, রুনা বেগম (৩০), সোহান (১১), মনির হোসেন (৩৬), হালিমা আক্তার (২০) ও কামাল হোসেন (২২)।

এ ছাড়া আবদুর রহিম (৩০), নাঈম হোসেন (৩৫), লাবনী আকতার (১৪), আয়েশা আকতার (১২), সালাউদ্দিন (৪৫), তুহিন (১২), সুদীপ (২১), মাহবুবুর রহমান (২৬), রাকিব হোসেন (২৬) ও আয়াত উদ্দিন (২৬) চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হঠাৎ কে বা কারা এ বোমা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে সেখানে থাকা লোকজনের মধ্যে শতাধিক জন আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে একজনের মৃত্যু হয়।

এদিকে, মিটফোর্ড হাসপাতালে আহত ৩১ জনকে নেওয়া হয় বলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মাসুদুর রহমান জানান। তাদের অনেকেই মিটফোর্ড হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেছেন বলে চকবাজার থানার ওসি জানিয়েছেন।

চকবাজার থানার ওসি আবদুল আজিজ বলেন, ‘তাজিয়া মিছিলের জন্য শিয়া মতাবলম্বীরা হোসেনি দালানে সমবেত হলে বিস্ফোরণগুলো ঘটে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।’

আশুরা উপলক্ষে পুরানা পল্টন, মগবাজার, মোহাম্মদপুর ও মিরপুরে শিয়া সম্প্রদায়ের মানুষ পতাকা মিছিল, বয়ানসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, আশুরা উপলক্ষে কারবালার যুদ্ধে শাহাদাত লাভ করা হজরত মুহাম্মদ (স.)-এর দৌহিত্র ইমাম হোসেন (রা.)-এর স্মরণে তার স্মৃতির প্রতি শোক ও সমবেদনা জানাতে ওই এলাকা দিয়ে তাজিয়া মিছিল করে শিয়া সম্প্রদায়েরা।