রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর মহিলা পরিষদের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলন

জিন্নাত হোসেন, দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ “নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ কর,সম অধিকার নিশ্চিত কর”-এই শ্লোগান সামনে রেখে ২৫ নভেম্বর হতে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্বমানবাধিকার দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখা দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
বৃহস্পতিবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলানায়তনে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি কানিজ রহমান এর সভাপতিত্বে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা সানু।
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করে সমঅধিকার নিশ্চিত করতে হলে পুরুষতান্ত্রিকতা, ধর্মান্ধতা মৌলবাদ এবং বৈষম্যমূলক আইনের পরিবর্তন অত্যান্ত জরুরী। বিগত বছরের তুলনায় দলগত ধর্ষণ, পারিবারিক সহিংসতাসহ বৈবাহিক ধর্ষণের মতো ঘটনা বেড়েই চলেছে। সম্প্রতি সময়ে ধর্ষণের স্বীকার নারীর সাথে ধর্ষকের বিয়ের ঘটনাও ঘটতে দেখা যাচ্ছে যা নারীর মানবাধিকার পরিপন্থি। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে নির্যাতনের ঘটনায় মাত্র ২ ভাগ নারী আইনের সহায়তা পাচ্ছে। বর্তমান সময়ে আমরা আরোও লক্ষ করছি পুরুষতান্ত্রিকতা সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে এমনভাবে গেঁথে আছে যে অগণতান্ত্রিক ভাবে প্রশাসনিক দায়িত্ববোধের জায়গায় থেকেও নারী পুরুষ বিভেদ সৃষ্টি করছে এবং বিচারকের অসংবিধানিক বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে ধর্ষণের স্বীকার নারীর ন্যায্য বিচার প্রাপ্তিতে বাধার সৃষ্টি করছে। এই ভাবে পুরুষতান্ত্রিকতা লালিত হচ্ছে সমাজের সকল ক্ষেত্রে। এই সমস্ত ঘটনা বারবার প্রমান করে ক্ষমতার অংশীদারিত্ব, বৈষম্যমূলক রীতিনীতি ও মনোস্তাত্তিকতার দাবী। এই অবস্থার পরিবর্তনে প্রয়োজন দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন, নারীবান্ধব প্রশাসন, জেন্ডার সংবেদনশীল পাঠ্যসূচী প্রণয়ন এবং সংবিধানের নীতিমালাসহ, নারীবান্ধব জাতীয় আন্তর্জাতিক দলসমুহের
বাস্তবায়ন, সিডোও সংরক্ষিত ধারা সমুহের থেকে সংরক্ষণ তুলে নেওয়ার মধ্যে দিয়েই নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করে সমঅধিকার নিশ্চিত করতে হলে পুরুষতান্ত্রিকতা, ধর্মান্ধতা মৌলবাদ এবং বৈষম্যমূলক আইনের পরিবর্তন অত্যান্ত জরুরী।
সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয় বর্তমানে সারাবিশ্ব কোভিড-১৯ মহামারীর প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত উল্লেখ্য যে মার্চ ২০২০-অক্টোবর ২০২১ এর সময়কালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তরুণ সমাজের অনেক ইতিবাচক কাজ করার পাশাপাশি কিছু নেতিবাচক প্রবনতা আশংকাজনক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি তরুণ সমাজ বিশেষ করে নারীর অবস্থানের ইতিবাচক পরিবর্তনের পাশাপাশি সমাজের ভেতরে মূল্যবোধে অবক্ষয় হচ্ছে। নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতা ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা করার মতো ঘটনা অব্যাহত ভাবে ঘটে চলেছে যা উদ্বেগ সৃষ্টি করছে। নভেম্বর’২০২০ হতে নভেম্বর’২০২১ এই সময়কালে দিনাজপুর জেলায় নারী ধর্ষণ মামলা হয়েছে-৩২৩টি, যৌতুকের জন্য নির্যাতিত মামলা হয়েছে-৭০৯টি, অপহরণ মামলা হয়েছে-১৭৯টি,এবং অন্যান্য মামলা হয়েছে-১০৬টি।
লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০২১ সামনে রেখে মহিলা পরিষদ নারী নির্যাতন প্রতিরোধে নারী নির্যাতন বিরোধী সংস্কৃতি, পরিবারে সমাজে ও রাষ্ট্রে গড়ে তোলার জন্য পুরুষ সমাজ ও তরুন-তরুনীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। এ লক্ষ্যে দিনাজপুর মহিলা পরিষদ পর্যায়ক্রমে যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের ঘটনা প্রতিরোধে তরুনীদের সাথে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক সভা, আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ’২১ ও বিশ্বমানবাধিকার দিবস সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করবেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সহ-সভাপতি মাহাবুবা খাতুন, মিনতি ঘোষ, সুমিত্রা বেসরা, অর্থ সম্পাদক রত্মা মিত্র, আন্দোলন সম্পাদক গৌরী চক্রবর্তী, সাংগঠনিক সম্পাদক রুবিনা আকতার, সদস্য রোকসানা বিলকিস, রেহেনা বেগম, শুক্লা কুন্ডু, অনামিকা পান্ডে এবং জেলা কমিটি ও পাড়া কমিটির নেতৃবৃন্দ।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email