শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

১৯ এপ্রিল দিনাজপুর ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন : ২৪ পদে ২ প্যানেলে ৪২ প্রার্থী

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৯ এপ্রিল। এই নির্বাচনে ২টি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ২৪টি পদের জন্য একটি প্যানেলে ২৪ জন প্রার্থী থাকলেও অপর প্যানেলে আছে মাত্র ১৮ জন। ২৪ জন প্রার্থীর প্যানেলে সভাপতি পদে এ্যাডঃ আব্দুল লতিফ এবং সাধারণ সম্পাদক পদে সফিকুল হক ছুটু প্রার্থী হয়েছেন। অপরদিকে ১৮ জন প্রার্থীর প্যানেলে নেতৃত্বে আছেন সভাপতি পদে মতিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ মঞ্জুর আহমেদ রুবেল। এর বাইরে আরো ১ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী ছিলেন। তার নাম আবুল কাশেম অরু। তিনি কার্যকরী কমিটির সদস্য পদে প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু গতকাল শনিবার তিনি তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নির্বাচন কমিশনের কাছে চিঠি দিয়েছেন। এরফলে ২৪টি পদের জন্য সর্বমোট প্রার্থী থাকলে ৪২ জন।

দিনাজপুর ডায়াবেটিক সমিতি এই নির্বাচনে ২০১৪-২০১৬ মেয়াদের কার্যকরী কমিটি গঠিত হবে। বিগত কমিটিতে আবুল কাশেম অরু সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এবার ওই পদে তিনি প্রার্থী না হয়ে সদস্য পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের পর প্রত্যাহারের তারিখ ছিল গত ৩০ মার্চ। কিন্তু ওই তারিখে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে তিনি গতকাল শনিবার দিনাজপুর কমিশনকে জানান যে, ব্যক্তিগত কারণে তিনি সদস্য পদে প্রার্থী থাকছেন না। অর্থাৎ তিনি নির্বাচন করছেন না। তাই এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্বাচন কমিশনকে তিনি অনুরোধ জানিয়েছেন। এদিকে সভাপতি পদে প্রার্থীদের মধ্যে এ্যাডঃ আব্দুল লতিফ সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য। তিনি সরাসরি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যুক্ত। ওই পদে আরেক প্রার্থী মতিউর রহমান সাংবাদিক হিসেবে সুপরিচিত। সাধারণ সম্পাদক পদে যারা প্রার্থী হয়েছেন তাদের ২ জনই দিনাজপুরের বিশেষ পরিচিত মুখ। সফিকুল হক ছুটু দিনাজপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র এবং ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশনের বর্তমান কমিটির একজন কর্মকর্তা। অপরদিকে মঞ্জুর আহমেদ রুবেল দিনাজপুর আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক। লতিফ-ছুটু প্যানেলে আওয়ামী লীগ-বিএনপি-জামায়াতসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিবর্গ প্রার্থী হয়েছেন। এই প্যানেলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কোষাধ্যক্ষ নির্বাচিত হয়েছেন জেলা বিএনপি’র সভাপতি লুৎফর রহমান মিন্টু। এই প্যানেলে প্রার্থী আছেন জামায়াত নেতা ও চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দীন মোল্লা। অপরদিকে মতিউর-রুবেল প্যানেলের প্রার্থীরা অপর প্যানেলের প্রার্থীদের তুলনায় কম পরিচিত। তবে সাধারণ সম্পাদক পদে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা। প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাড়ানো আবুল কাশেম অরু ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি সদস্য পদে প্রার্থী হয়ে কেন নির্বাচন থেকে সরে যাচ্ছেন তার সঠিক ব্যাখ্যা জানা যায়নি। তবে তিনি ব্যক্তিগত কারণেই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন না বলে এই প্রতিনিধিকে জানান।

উলে­খ্য, দিনাজপুর ডায়াবেটিক এ্যাসোসিয়েশনের আজীবন সদস্য ২৫১ জন এবং বার্ষিক সদস্য ৪৫ জন। এই সদস্যরাই ভোটার। তবে আজীবন সদস্যদের অনেকে মারা যাওয়ায় এবং অনেকে বিদেশে থাকায় সর্বমোট ভোটার সংখ্যা ২৪৬ জন।